সংবাদ শিরোনাম
ধর্ষণে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা সাইফুরের রুম থেকে অস্ত্র উদ্ধার | স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভাঙা কুটিরে মানবেতর জীবন যাপন করছেন আ.লীগ নেতা বাচ্চু | উইঘুর সংস্কৃতি বিলুপ্ত করতেই হাজার মসজিদ ধ্বংস করে চীন | যে কারণে এই মুহূর্তে সরকার পতনের আন্দোলন করবেন না নুর | টাঙ্গাইলে বন্যায় সড়ক বিভাগের ৬০ কিলোমিটার রাস্তার ক্ষয়ক্ষতি | এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ, ছাত্রলীগের যাদের খুঁজছে পুলিশ | মসজিদে নামাজ পড়তে আসলেই উপহার পাচ্ছে শিশুরা | স্কুলছাত্রী নীলা হত্যার প্রধান আসামি মিজান গ্রেফতার | করোনায় বিশ্বে ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে: ডব্লিউএইচও | এমসি কলেজ হোস্টেলে স্বামীকে বেধে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে |
  • আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দেশে রেড জোন চিহ্নিত, আগামীকাল থেকে লকডাউন শুরু

৩:২৪ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুন ১৪, ২০২০ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ঢাকাসহ দেশের অনেক স্থানে রেড জোন ঘোষণা করে লকডাউন করা হবে বলে জানিয়েছেন জন প্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। এ বিষয়ে আজ রোববারই (১৪ জুন) প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

এ সময় জন প্রশাসন প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, রেড জোন বা বিপজ্জনক এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে। রাজধানী ঢাকার ও দেশের বেশ কিছু এলাকাতে সোমবার (১৫ই জুন) থেকে লকডাউন কার্যকর হবে।

তিনি বলেন, রেড জোনে সাধারণ ছুটি থাকবে। যাতে মানুষ বাইরে না যায়, ভেতরে না আসে। সরকারি, আধা-সরকারি এবং স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে নির্দেশনা দেবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সাধারণ ছুটির প্রস্তাবনা করেছি, আশা করি আজকের মধ্যে দিতে পারবো। আর বেসরকারি অফিসের ছুটির বিষয়টি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে নির্দেশনা জারি করা হবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা স্পেসিফিক এরিয়া লকডাউন করবো। ১৪-২১ দিন লকডাউন থাকবে। সেখানে খাবার পৌঁছানো, অন্য রোগী থাকলে তার সেবা প্রাপ্তির জন্য কমিটি এবং হেল্প লাইন থাকবে। এছাড়াও করোনার বার্তা পেতে মোবাইল ট্রেসিং ও মোবাইল অ্যাপের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

লকডাউন এলাকায় সংক্রমক ব্যাধি আইন প্রয়োগ করা হবে জানিয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আমরা এ সংক্রান্ত রেজুলেশন পেয়েছি।

এর আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার ঠেকাতে রাজধানী ঢাকার একটি এলাকা পূর্ব রাজাবাজারকে রেড জোন হিসাবে চিহ্নিত করে গত মঙ্গলবার (৯ জুন) রাত থেকে সেই এলাকাকে পরীক্ষামূলকভাবে লকডাউন করা হয়।

এদিকে রেড জোন এলাকার সংজ্ঞা নির্ধারণে আগের অবস্থান থেকে কিছুটা সরে এসেছে কর্তৃপক্ষ। নতুন সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, সবশেষ ১৪ দিনের মধ্যে রাজধানী ঢাকার কোনো এলাকায় যদি ৬০ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয় তাহলে সেটা রেড জোন। ঢাকার বাইরের কোনো এলাকার ক্ষেত্রে যদি একই সময়ের মধ্যে ১০ জন রোগী চিহ্নিত হয়, তাহলে সেটা হবে রেড জোন।