রংপুর অঞ্চলে কৃষিতে ক্ষতি সাড়ে ৯ কোটি টাকা

১২:১২ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুন ১৭, ২০২০ রংপুর
dhamn

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুরঃ ঘূর্ণিঝড় আম্পানে রংপুরাঞ্চলের ৪০১ হেক্টর জমির কৃষিতে ৯ কোটি ৭২ লাখ ১১ হাজার ১৩০ টাকা ক্ষতি হয়েছে। যেসব জেলার কৃষিতে ক্ষতি হয়েছে সেসব জেলা হল- রংপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট। তবে নীলফামারী জেলায় কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

ক্ষতিগ্রস্থ ফসলের মধ্যে রয়েছেঃ বোরো, ভুট্টা, শাকসবজি, মরিচ, কলা, তিল, মুগ, আম ও পান বোরজ বলে অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রংপুর সূত্রে জানা যায়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রংপুরের অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় আম্পানে রংপুরে ৩৪৫ জন কৃষকের ৩৮ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়। এই জেলায় ক্ষতির পরমাণ দাঁড়ায় ১ কোটি ২৮ লাখ ১২ হাজার টাকা। গাইবান্ধা জেলায় ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়ায় ২৭২ হেক্টর জমির। এখানে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের সংখ্যা ৬ হাজার ৬৫০ জন। এইসব কৃষকের ক্ষতি হয় ৭ কোটি ৩৪ লাখ ৬৫ হাজার টাকা। রংপুরাঞ্চলের ৪ জেলার মধ্যে এই জেলাতেই বেশি ক্ষতি হয় কৃষকের।

কুড়িগ্রাম জেলায় ৩ হাজার ১৯০ জন কৃষকের ৮৯ হেক্টর ফসলের ক্ষতি হয়। এখানে টাকার অঙ্কে দাঁড়ায় ১ কোটি ১৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং লালমনিরহাট জেলায় সবচেয়ে কম ক্ষতি হয় ফসলের। এখানে ৩১২ জন কৃষকের ২ দশমিক ৩৩ হেক্টর ফসলের ক্ষতি হয়। ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়ায় লাখ টাকা।

কৃষি কার্যালয় জানায়, রংপুরাঞ্চলে আম্পানে শাকসবজির বেশি ক্ষতি হয়। শুধুমাত্র ২৭১ দশমিক ৪ হেক্টর জমির সবজি নষ্ট হয় সেই সময়। এখানে ৫ হাজার ৬২০ জন কৃষকের ৫ কোটি ৮৫ হাজার ৫০০ টাকার ক্ষতি হয়।

রংপুরের পালিচড়া এলাকার জয়নাল চাষী জানালেন, এবছর করলা ৩৫ শতক চাষ করেছিলেন। আম্পানের ফলে করলা ক্ষেত নষ্ট হয়ে যায়। কয়েকজন মরিচ চাষী জানান, তারা গ্রীস্মকালীন মরিচ চাষ করেছিলেন। গাছও বেশ ভালো হয়েছিল। ঝড়ে সব শেষ করে দিয়ে যায়। এতে তাদের হাজার হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতির কথা জানান, কয়েকজন বাদাম চাষীও।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রংপুরের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ আলী সময়ের কন্ঠস্বরকে জানান, ঘূর্ণিঝড় রংপুরে আঘাত হানার সম্ভাবনা ছিল না। ঝড়ের কারণে বোরো, আম, ধান, কলা, সবজিসহ বিভিন্ন ফসল আক্রান্ত হয়। এ অঞ্চলে ৪০১ হেক্টর জমির কৃষিতে ৯ কোটি ৭২ লাখ ১১ হাজার ১৩০ টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিষয়টি তারা কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য সুপার সাইক্লোন আম্পান গত ২০ শে মে বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী ভারতের পূর্বাংশে এবং বাংলাদেশে আঘাত হানে। এ শতাব্দীতে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া এটিই প্রথম সুপার ঘূর্ণিঝড়।