নিউজিল্যান্ডে কোয়ারেন্টিনের দায়িত্বে সেনাবাহিনী

১০:০৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ১৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
jessi

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা-মুক্ত ঘোষণার পর সপ্তাহ ঘোরার আগেই গতকাল নিউজিল্যান্ডে নতুন করে দু’জন সংক্রমিত হয়েছেন। যা নিয়ে আজ নিজের প্রশাসনকেই দুষলেন প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডের্ন। প্রশাসনের উপর ক্ষুব্ধ হয়ে এবার কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা তদারকির দায়িত্ব দিলেন সেনাদের উপর।

জাসিন্ডা আরডের্ন বলেন, ‘বোঝাই যাচ্ছে, ভুলটা আমাদের। এটা মেনে নেওয়া যায় না। আগামী দিনে যাতে এমনটা না-ঘটে, তা নিশ্চিত করতেই হবে।’

জানা যায়, সম্প্রতি ব্রিটেন থেকে অস্ট্রেলিয়া হয়ে নিউজিল্যান্ডে আসে দুই মহিলা। মৃত্যুপথযাত্রী আত্মীয়কে দেখতে অকল্যান্ডের আইসোলেশন হোটেল ছেড়ে তাঁদের নিজেদের গাড়িতে ওয়েলিংটনের বাড়ি যেতে দেওয়া হয়েছিল মানবিকতার খাতিরেই। এরপরই তাদের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

সরাসরি সেই সিদ্ধান্তকে না দুষলেও প্রশাসনের উপর নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী যে ক্ষুদ্ধ তা প্রকাশ পেয়েছে তার কথায়। আজ জাসিন্ডা আরডের্ন বলেন, ‘কোয়ারেন্টিন পদ্ধতি যথাযথভাবে মানা হচ্ছে কি না, এবার থেকে তা দেখবে সেনাবাহিনী।’

আরডের্ন আরও বলেন, ‘গোড়া থেকে সীমান্তে কড়া নজরদারি চালিয়েই সাফল্য পেয়েছি। সেই কারণেই বিদেশ থেকে যারা ফিরছেন, তাদের সরকারি বন্দোবস্ত মানতেই হবে।’

এদিকে দ্বিতীয় দফার করোনাঝড় ভাবাচ্ছে চীনকেও। গত পাঁচ দিনে ১৩৭টি নতুন সংক্রমণের পরেই ফের নড়ে বসেছে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের প্রশাসন। দুটি প্রধান বিমানবন্দর থেকে ৭০ শতাংশেরও বেশি অর্থাৎ প্রায় ১২৬০টি অন্তর্দেশীয় ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। বেজিংয়ের বেশ কিছু স্কুলও ফের বন্ধ হয়ে গেছে বুধবার থেকে।

এদিকে সারাবিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ লাখ ২৩ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন চার লাখ ৫১ হাজারের বেশি। আর সুস্থ হয়েছেন ৪৪ লাখ ৩৩ হাজার প্রায়।

প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ও দৃঢ় অর্থনীতির দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২ লাখ ৩৪ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন এক লাখ ২০ হাজার প্রায়।