সংবাদ শিরোনাম
আশুলিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তরুণী ধর্ষণের অভিযোগ, মামলা তদন্ত করছে পিবিআই | রাজশাহীতে রোপা আমনের বাম্পার ফলনে আশাবাদী কৃষক ও কৃষি দপ্তর | এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণের ঘটনায় আসামি মাহফুজুর রহমান গ্রেফতার | গাজীপুরে পিবিআইয়ের অভিযানে অপহরণকারী চক্রের  ২সদস্য গ্রেফতার | সিলেট এবং খাগড়াছড়িতে ধর্ষণের প্রতিবাদে গাজীপুরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ | শিল্পপতি হাসান মাহমুদ চৌধুরীর মৃত্যুতে ভূমিমন্ত্রীর শোক | বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড দলকে অভিনন্দন জানালেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | ‘শেখ হাসিনার জন্যই গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা পেয়েছে’- মেয়র তাপস | ‘নভেম্বরে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন’- স্বাস্থ্যমন্ত্রী | শেখ হাসিনা বাঙালি জাতির বাতিঘর ও কাণ্ডারি: শিক্ষামন্ত্রী |
  • আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্বের নবম এবং এশিয়ার এক নম্বর ধনী মুকেশ আম্বানি

১২:১২ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, জুন ২২, ২০২০ জানা-অজানা
muk

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুকেশ আম্বানি এশিয়ার এক নম্বর ধনী ব্যক্তি ও বিশ্বের শীর্ষ দশ ধনীর তালিকায় ঢুকে পড়েছেন।

বিলিওনিয়ার ইনডেক্সের সবশেষ তালিকায় দেখা যাচ্ছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৬৩ বছর বয়সী এই চেয়ারম্যানের মোট সম্পত্তি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৪ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে। এর ফলে একমাত্র এশীয় হিসেবে তিনি ঢুকে পড়েছেন বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনীর তালিকায়।

আর এবারও সেরা স্থানটি ধরে রেখেছেন অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। তার সম্পদের পরিমাণ ১৬ হাজার ৪০০ কোটি ডলার। এর পরের অবস্থানে আছেন মাইক্রোসফটের বিল গেটস। তার সম্পদের পরিমাণ ১০ হাজার ৯৯০ কোটি ডলার।

তৃতীয় স্থানে রয়েছেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী জাকারবার্গ। চতুর্থ স্থানে রয়েছেন ফ্রান্সের লিলিয়ানে বেটেনকোর্ট ও গ্রুপ আরনল্টের বার্নার্ড আরনল্ট। এরপর রয়েছেন বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ের ওয়ারেন বাফেট।

রিলায়েন্সের ৪২ শতাংশ মালিকানা মুকেশ আম্বানির। কোম্পানির ডিজিটাল ইউনিট জিও প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডে আচমকা বিনিয়োগ করে তিনি লাভবান হয়েছেন; সেই বিনিয়োগ কোম্পানিটিকে টার্গেটকৃত মার্চ ২০২১-এর আগেই দেনামুক্ত হতে সাহায্য করেছিল বলে দাবি রিলায়েন্সের।

মহামারি করোনাভাইরাসের আঘাত সত্ত্বেও মুকেশ আম্বানির কোম্পানি রিলায়েন্সের শেয়ার মূল্য গত মার্চে দ্বিগুণ বেড়েছে। রিলায়েন্সের একজন গণমাধ্যম প্রতিনিধিও অবশ্য আম্বানির সম্পত্তির এই উল্লম্ফন ও তালিকায় তার উপরে উঠে আসা নিয়ে কিছু বলতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য মুকেশ আম্বানি শুধু একজন ধনী ব্যক্তিই নন। তিনি অত্যন্ত বিলাসী একজন মানুষ। তিনি যে বাড়িতে থাকেন তা বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি বাড়ি। যেটির নাম অ্যান্টিলিয়া। ভারতের মুম্বাই শহরের আলটামাউন্ট রোডে অবস্থিত এই বাড়ির দাম ২০০ কোটি ডলার, যা ভারতের ১৪ হাজার কোটি রুপির সমান। এই বাড়ির চেয়ে বেশি ব্যয়বহুল আর একটি বাড়িই আছে বিশ্বে, সেটি হলো ব্রিটিশ রাজপরিবারের প্রধান প্রশাসনিক দপ্তর বাকিংহাম প্যালেস।

এছাড়া মুকেশ আম্বানি ব্যবহার করেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি বেশ কয়েকটি গাড়ি। এসব গাড়ির মধ্যে আছে দুটি বেন্টলি বেন্টাগা মার্সিডিজ মেব্যাচ, অ্যাস্টমার্টিন রেপিড, রোলসরয়েস ফ্যান্টম, ল্যান্ডরোভার ডিসকভারি, ল্যান্ডরোভার রেঞ্জ রোভার, এনডেভার, বিএমডব্লিউ ইত্যাদি। এর মধ্যে বেন্টলি বেন্টাগার দাম ৭ কোটি ৬০ লাখ রুপি।