করোনায় আক্রান্ত মাশরাফির খোঁজ রাখছেন পাপন

৮:১২ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুন ২২, ২০২০ খেলা
papon

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দেশের সফলতম ক্রিকেট অধিনায়ক এবং নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে মাশরাফির শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর রাখছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপন। বিসিবির প্রধান নির্বাহি নিজামউদ্দিন চৌধুরি আজ গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘মাশরাফির শারীরিক অবস্থা জানতে ডাক্তারের সাথেও কথা বলেছেন বিসিবি সভাপতি। পাশাপাশি তাকে মানসিকভাবে সাহসও দিয়েছেন। একজন খেলোয়াড় হওয়ার সুবিধায় সাধারণ মানুষের চাইতে মাশরাফি অনেক বেশি শক্ত ও ফিট আছেন। তাই আমরা আশা করছি, তার জন্য কোনো সমস্যা হবে না। অন্য কোনো ক্রিকেটারও কোভিড-১৯এ আক্রান্ত হলে খেলোয়াড়দের সকল চিকিৎসা দেয়া হবে।’

নিজামউদ্দিন চৌধুরি বলেন, ‘ত্রাণ বা অন্য কিছু দেয়া বন্ধ করতে আমরা খেলোয়াড়দের বলতে পারি না। এটি ঠিক হবে না। কিন্তু আমরা তাদের নিরাপদ থাকার জন্য বলতে পারি। নিরাপদ থাকতে কি করতে হবে এখন তা সকলেই জানে। তবে কেউ দুর্ভাগ্যক্রমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে আমরা তাদের সেরা চিকিসার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পারি। একজন সংসদ সদস্য হওয়ায় আমাদের কাছ থেকে মাশরাফি খুব বেশি কিছু কিছু নিতে পারে না। কিন্তু অন্যান্য খেলোয়াড়দের তা প্রয়োজন হতে পারে। তাই আমরা এ বিষয়ে অনেক বেশি সর্তক।’

এর আগে শুক্রবার (১৯ জুন) করোনা টেস্ট করার পর শনিবার মাশরাফির রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এর আগে তিন-চারদিন ধরে সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। করোনায় আক্রান্ত মাশরাফির খবর প্রকাশ হওয়ার পরই স্তম্ভিত হয়ে পড়ে ক্রীড়াপ্রেমীরা। সবাই দোয়া করছেন মাশরাফি যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল আশা প্রকাশ করছেন, দ্রুতই করোনা জয় করে মাশরাফি ফিরে আসবেন। তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ‘মহান রাব্বুল আল-আমিন আল্লাহ তায়ালার কাছে প্রার্থনা, সুস্থ হয়ে ফিরে আসো আমাদের সকলের প্রিয় মাশরাফি। দোয়া করি, আল্লাহ তোমাকে এবং তোমার পরিবারের সবাইকে সবসময় ভাল রাখুন, আমিন।’

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই বেশ সক্রিয় ছিলেন মাশরাফি। তিনি তার নির্বাচনী এলাকা নড়াইল-২ আসনে দুস্থ-অসহায়দের পাশে অর্থ সহায়তা থেকে শুরু করে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মাশরাফির শ্বাশুড়ি ও স্ত্রীর বড় বোন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা। মাশরাফি অবশ্য তাদের সংস্পর্শে আসেননি। এমনকি দুই সপ্তাহ ধরে ঢাকায় আলাদাভাবে কোয়ারেন্টিনে ছিলেন তিনি।