পলাশবাড়ীতে অসুস্থতা সইতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

attohotta
❏ মঙ্গলবার, জুন ২৩, ২০২০ রংপুর

রবিউল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে অসুস্থতার জ্বালা সইতে না পেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্বপ্না রানী (৩৫)নামের এক গৃহবধু।

জানা যায়, পলাশবাড়ীর হরিনাথপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত পল্লী হরিনাবাড়ী দক্ষিণপাড়ার কাঠমিস্ত্রী শান্তি চন্দ্র সূত্রধরের সাথে সুন্দরগঞ্জের সিঁচা পাঁচপীর এলাকার কান্তি চন্দ্র সূত্রধরের মেয়ে স্বপ্না রানীর বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের ঘর সংসার বেশ ভালই কাটছিল।

সময়ের ব্যবধানে বিভিন্ন জটিল রোগ স্বপ্নার শরীরে দেখা দেয়। এরই মধ্যে পর-পর দুই ছেলে সন্তানের জন্ম হয় তাদের ঘরে। কিন্তু অসুস্থতা যেন স্বপ্নার পিছু ছাড়ছিল না।দিনের পর মাস পেরিয়ে বছর ধরে নামী-দামী চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলেও সুস্থতার পরিবর্তে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন স্বপ্না রানী।

২২ জুন সোমবার বিকেলে বাড়ীর সকলের অজান্তে সুযোগ বুঝে শয়ন ঘরের তীরের সাথে রশি পেঁচিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। এর আগেও তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন বলে স্বজনরা জানায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হরিনাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রাকিব হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, কারো কোন অভিযোগ না থাকায় শান্তিপুর্ন পরিবেশে স্বপ্নার সৎকার সম্পন্ন করা হয়।

আরও পড়ুন :

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন