🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ১১ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

স্বাস্থ্য বিভাগকে ‘মহা আজগুবি বিভাগ’ বললেন এমপি একরাম

ekram
❏ মঙ্গলবার, জুন ২৩, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে ‘মহাআজগুবি’ বিভাগ বলে মন্তব্য করেছেন নোয়াখালী-৪ (সদর-সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। এছাড়া ‘মিঠু সিন্ডিকেটের’ বিরুদ্ধেও মুখ খুলেছেন তিনি।

সোমবার এক ফেসবুক লাইভে তিনি এ কথা বলেন। সেই ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত তাঁর ভিডিওটি প্রায় ২ লাখ ১৯হাজার ভিউ প্রায় ৯হাজার শেয়ার এবং প্রায় দুই হাজার মানুষ মন্তব্য করেছেন।

একরামুল করিম চৌধুরী বলেন, কিটের অভাবে আজকে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর এবং ফেনী- এই তিন জেলার করোনা পরীক্ষা বন্ধ। যার কারণে মানুষের মধ্যে হাহাকার সৃষ্টি হয়েছে। দুই/তিন দিন আগে আমি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে ‘আজগুবি’ বিভাগ বলেছিলাম। কিন্তু এটা আজগুবি নয়, এটা ‘মহাআজগুবি’ বিভাগ।

আমাকে একজন বললেন- আজকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিজেই নাকি বলেছেন কিটের অভাব। কিন্তু জানামতে বাংলাদেশের তিনটা চারটা ব্যবসায়ী কোম্পানি প্রায় ১০ লাখ কিট এনে রেখেছে। কিন্তু তারা দিতে পারছে না মিঠু সিন্ডিকেটের কারণে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘মিঠু সিন্ডিকেট’ যতক্ষণ পর্যন্ত ভাঙা না যাবে, ততক্ষণ এই মন্ত্রণালয় কখনো ভালো থাকবে না।

সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে দু-তিন দিনের মধ্যে যেভাবে আপনি ক্যাসিনোকে ধ্বংস করেছেন, মানুষের কাছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছেন, আপনার কাছে অনুরোধ, আপনি স্বাস্থ্যসেবার এই সিন্ডিকেটটি ভাঙার চেষ্টা করুন। এই আজগুবি বিভাগ থেকে যদি সিন্ডিকেটটা ভাঙতে পারেন, তাহলে দেশের মানুষ অনেক সুফল পাবে। কারণ, ওই সিন্ডিকেট স্বাস্থ্য বিভাগটিকে কাবু করে রেখেছে।’

তিনি বলেন, প্রাণের স্পন্দন ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আমার মাথার মুকুট আওয়ামী লীগসহ প্রত্যেকটি সংগঠন থেকে নেতাকর্মী নিয়ে নোয়াখালীর ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে করোনাবিরোধী সংগ্রাম কমিটি গঠন করুন। প্রয়োজনে বিরোধী দলের কেউ যদি আসতে চায় তাদেরকে কমিটিতে নেন। এবং যে বাড়িতে করোনা আক্রান্ত সেই বাড়িতে লাল পতাকা এবং সাইনবোর্ড টানিয়ে দিন।

একরামুল করিম চৌধুরী বলেন, করোনা আক্রান্তদের বাড়ি ঢোকা এবং বের হওয়া যাবে না। এটা আমার নির্দেশনা রইল। কোন এমপি বা কে কি বললো সেটা না আমি নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অনুরোধ করছি, নির্দেশনা দিচ্ছি গড়ে তুলুন সংগ্রাম কমিটি। মুক্তিযুদ্ধের চিন্তা করে এই অদৃশ্য শক্তির জন্য মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আপনারা দাঁড়িয়ে যান। আপনারা একটু কষ্ট গোটা দেশকে রক্ষা করবে। সকলে ভালো থাকুন। এ সময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবারও এই সিন্ডিকেট ভেঙে দেওয়ার অনুরোধ জানান।

আরও পড়ুন :
mou 748541 মাদক মামলায় হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

mosq n324 সাঁতরে মসজিদে যাওয়া সেই ইমাম পেলেন নৌকা ও নগদ টাকা

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

অবশেষে হাইকোর্টে জামিন পেলেন ঝুমন দাস

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন