সামান্য বৃষ্টি হলেই ডুবে যায় সড়ক, চরম দুর্ভোগে তানোর পৌরবাসী

৯:৪৮ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ২৩, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

অসীম কুমার সরকার, তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোর পৌরসভার ব্যস্ততম এলাকায় কয়েকটি সড়কে উন্নয়ন ও সংস্কারের ছোঁয়া নেই। দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থা চলছে। সামান্য বৃষ্টি হলে জমে যাচ্ছে হাঁটু পানি।

বিভিন্ন জায়গায় খানাখন্দ ও জলাবদ্ধতায় সড়কটি হয়ে পড়েছে চলাচলের অনুপযোগী। এতে চরম দুর্ভোগে পৌরবাসী। কাদা পানিতে ডুবে থাকা সড়ককে দেখে মনে হয় যেন মরা খাল। এতে অসাবধনতায় গর্তে পড়ে ঘটছে দুর্ঘটনা।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড থানামোড় শামশুদ্দিন মাস্টার বাড়ী থেকে ভবেশ ডাক্তারের বাড়ী, তানোর হিন্দুপাড়া অলক দাসের বাড়ী থেকে উপজেলা জামে মসজিদের পেছনের রাস্তা ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড গোল্লাপাড়া বাজার বিশ্বনাথ দাসের দোকান থেকে মুনছুর চেয়ারম্যান বাড়ী পর্যন্ত সড়কের বেহাল অবস্থা। প্রায় এক কিলোমিটার এই সড়কগুলোর দীর্ঘদিন সংস্কার হয়নি। বিভিন্ন স্থানে খোয়া উঠে গিয়ে তৈরি হয়েছে গর্ত। সড়কের পাশের ড্রেনও সংস্কার হয়নি দীর্ঘদিন। ফলে ময়লা আবর্জনায় ড্রেনগুলো বন্ধ প্রায়। তাই বৃষ্টির পানি প্রবাহিত হয় সড়কে।

তানোর হিন্দুপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী শুভ কুমার দাস জানান, দীর্ঘ ৫ বছর থেকে রাস্তাটির কোন সংস্কার নেই। রাস্তা ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার সংস্কার না হওয়ায় বৃষ্টি হলেই রাস্তা ডুবে থাকে পানিতে। কয়েকদিন আগে স্বেচ্ছাশ্রমে অনেকেই মিলে এই ড্রেনটি সংস্কার করা হয়েছে। পৌরসভার কোন নজর নেই এখানে।

সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম ও ব্যবসায়ী বিশ্বনাথ দাস বলেন, বৃষ্টি হলেই রাস্তায় পানি জমে যায়। দীর্ঘদিন থেকে রাস্তাটি ভাঙ্গাচুরা অবস্থায় আছে। ড্রেন ভরাট হয়ে রাস্তা দিয়ে দুর্গন্ধ পানিতে ভরে যায়। চলাচলে খুব অসুবিধা হয়। রাস্তাটি আশু সংস্কার ও আরসিসি ড্রেন তৈরির জোর দাবি জানান তারা।

এ নিয়ে তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজান বলেন, ৫ নম্বর ওয়ার্ড গোল্লাপাড়া গ্রামের রাস্তাটির কাজ ট্রেন্ডার হয়ে গেছে। করোনার জন্য কাজ করতে বিলম্ব হচ্ছে। আর ৪ নম্বর ওয়ার্ড অলক দাসের বাড়ীর সংলগ্ন রাস্তাটির ট্রেন্ডার হয়ে গেছে। দু’একের মধ্যে কাজ শুরু হবে। আর তানোর হিন্দুপাড়াসহ সকল ওয়ার্ডের ড্রেনগুলো আশু সংস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।