সংবাদ শিরোনাম
‘দেশের সবগুলো নদী খনন করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে’- পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী | শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে মাগুরায় দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ | “সৃষ্টিকর্তার রহমতে বাংলাদেশে ব্যাপক হারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়নি” | ভারতের ভ্যাকসিন সমগ্র মানবজাতির কল্যাণে ব্যয় করা হবে: মোদি | ‘সিগারেট খেয়েছি, ড্রাগস নয়..ড্রাগস নিত সুশান্ত’- সারা আলী খান | ৫ অক্টোবর ঢাকায় আসছেন ভারতের নতুন হাইকমিশনার | পাবনা-৪ আসন উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নুরুজ্জামান বিশ্বাস বিজয়ী | ‘বাংলাদেশের বিপুল পরিমাণ ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে’- শেখ হাসিনা | ‘মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে’- প্রধানমন্ত্রী | শেরপুরে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে আটক-১ |
  • আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনার চেয়েও বড় সংকট বিশ্ব নেতৃত্বের অভাব: ডব্লিউএইচও

৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ২৩, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারি মোকাবিলায় বৈশ্বিক নেতৃত্বহীনতাকেই সবচেয়ে বড় হুমকি বলে মনে করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সোমবার (২২ জুন) দুবাইতে আয়োজিত স্বাস্থ্য বিষয়ক এক ভার্চ্যুয়াল সামিটে অংশ নিয়ে এমন মন্তব্য করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস অ্যাডহানম গেব্রিয়েসাস।

টেড্রোস বলেন, বৈশ্বিক নেতৃত্বহীনতা এবং অনৈক্যই হচ্ছে করেনা মোকাবিলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় হুমকি। করোনার রাজনীতিই মহামারিকে আরও অবনতির দিকে নিয়ে গেছে।

এসময় তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্যভুক্ত কিছু রাষ্ট্র, বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্র নভেল করোনা ভাইরাসকে খুব দুর্বল এবং চীন কেন্দ্রীক মনে করায় দেশটির সমালোচনাও করেন।

তিনি বলেন, বিশ্বে এখন ঐক্য ব্যাপকভাবে প্রয়োজন। কিন্তু দলীয় রাজনীতি মহামারিকে আরও ভয়ংকর হতে সাহায্য করেছে। বর্তমানে আমরা যে হুমকির মুখোমুখি হয়েছি, সেটা ভাইরাস নয়; এটা হচ্ছে সংহতি ও বিশ্ব নেতৃত্বের ঘাটতি।

‘সব দেশের উচিত স্বাস্থ্যখাতকে সবচেয়ে বেশি প্রধান্য দেওয়া। অর্থনৈতিক, সামাজিক ও বৈশ্বিক স্বাস্থ্য নিরাপত্তার ভিত্তি আরও শক্তিশালী করা প্রয়োজন।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তার বক্তব্যের কোনো স্পষ্ট ব্যাখ্যা না দিলেও করোনাভাইরাস মহামারীকালে বিশ্বের প্রভাবশালী রাষ্ট্রের মধ্যে দূরত্ব আরও বেড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যে ডব্লিউএইচওর বিরুদ্ধে চীনের প্রতি পক্ষপাতের অভিযোগ তুলে সংস্থাটিতে তহবিল জোগানো স্থগিত করেছে। বাণিজ্য নিয়ে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের টানাপড়েন কয়েক বছর ধরে চলছিল; সেই দূরত্ব আরও বাড়িয়ে তুলেছে করোনাভাইরাস মহামারী।

গত বছরের শেষে চীনের উহানে নতুন এই করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর দেশটি বিশ্বকে তথ্য না দিয়ে তা গোপন করতে চেয়েছিল বলে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ।

চীন থেকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার পর মহামারীতে বিপর্যস্ত এখন যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বে আক্রান্ত ৯০ লাখ মানুষের মধ্যে প্রায় ২৩ লাখই যুক্তরাষ্ট্রের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তার বক্তব্যের কোনো স্পষ্ট ব্যাখ্যা না দিলেও করোনাভাইরাস মহামারীকালে বিশ্বের প্রভাবশালী রাষ্ট্রের মধ্যে দূরত্ব আরও বেড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যে ডব্লিউএইচওর বিরুদ্ধে চীনের প্রতি পক্ষপাতের অভিযোগ তুলে সংস্থাটিতে তহবিল জোগানো স্থগিত করেছে। বাণিজ্য নিয়ে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের টানাপড়েন কয়েক বছর ধরে চলছিল; সেই দূরত্ব আরও বাড়িয়ে তুলেছে করোনাভাইরাস মহামারী।

গত বছরের শেষে চীনের উহানে নতুন এই করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর দেশটি বিশ্বকে তথ্য না দিয়ে তা গোপন করতে চেয়েছিল বলে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ।

চীন থেকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার পর মহামারীতে বিপর্যস্ত এখন যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বে আক্রান্ত ৯০ লাখ মানুষের মধ্যে প্রায় ২৩ লাখই যুক্তরাষ্ট্রের। শনাক্ত রোগীর বিচারে ভারত এখন বিশ্বে চতুর্থ। সোয়া ৪ লাখের বেশি রোগী ধরা পড়েছে দেশটিতে। যুক্তরাষ্ট্রে মতো কড়া ভাষায় না হলেও এই মহামারী মোকাবেলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তৎপরতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেক বিশেষজ্ঞ।

দুবাইয়ের ফোরামে আলোচনায় গ্যাব্রিয়েসুস বলেন, কিছু অঞ্চলে মহামারী মোকাবেলায় স্বাস্থ্য সুরক্ষার কাজটি আরও জোরদার করা দরকার। কিন্তু কোন কোন অঞ্চলে তাও স্পষ্ট করেননি তিনি।

ক’দিন আগেই ডব্লিউএইচও সতর্ক করেছিল, করোনাভাইরাস এখন আরও দ্রুত ছড়াচ্ছে। এরপর একদিন আগেই ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৮৩ হাজার ২০ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্তের কথা জানায় সংস্থাটি।