• আজ মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

এবার বাংলাদেশ থেকে কেউ হজে যেতে পারছেন না


❏ মঙ্গলবার, জুন ২৩, ২০২০ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- সৌদি আরবে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের নাগরিকরা এ মৌসুমে হজে অংশ নিতে পারবেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি সরকার।

তাই এবার বাংলাদেশসহ বিশ্বের কোনও দেশের নাগরিকই হজে অংশ নিতে পারবেন না। এমনকি হজে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যাও হবে সীমিত। সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় সোমবার রাতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে।

সৌদি আরবের এই সিদ্ধান্তের ফলে অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশ থেকে নিবন্ধন করা ৬১ হাজার মুসল্লি হজে যেতে পারছেন না। এখন তাঁদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে, না অন্য কিছু করা হবে, সেটি ঠিক করতে আগামীকাল বুধবার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে সভা ডেকেছে বাংলাদেশের ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, হজ নিবন্ধনের জন্য যাঁরা টাকা জমা দিয়েছেন, তাঁদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে, নাকি আগামী বছরের জন্য রাখা হবে, সেটা এই সভায় আলোচনার ভিত্তিতে ঠিক করা হবে। কেউ যদি টাকা তুলে নিতে চান, সে ক্ষেত্রে করণীয়ও কাল ঠিক হবে। সভার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানানো হবে। কারণ, ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা শেখ মো. আব্দুল্লাহ মারা যাওয়ার পর এখন প্রধানমন্ত্রীই ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে আছেন। তাঁর অনুমতি নিয়ে পরে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্ধারিত কোটা অনুযায়ী সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে এবার বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ৩৭ হাজার মুসল্লির হজে যাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু এবার নিবন্ধন করেন ৬১ হাজার মুসল্লি।

তবে সৌদি সরকারের সবশেষ ঘোষণা অনুযায়ী এটা নিশ্চিত হয়ে গেল, অন্য দেশগুলোর মতো বাংলাদেশ থেকে হজ করতে আগ্রহীরাও এ বছর হজ পালনের সুযোগ পাবেন না।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের অব্যাহত সংক্রমণের মুখে হজ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয় শুরু থেকেই। এ পরিস্থিতিতে ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া এবার তাদের নাগরিকদের প্রতি হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা দেয়। অন্য মুসলিম দেশগুলো নিষেধাজ্ঞা না দিলেও এবার সৌদি আরবই জানাচ্ছে, তারা কাউকে হজ পালনের জন্য সৌদি আরব আসতে অনুমোদন দেবে না।

জানা যায়, প্রতি বছর বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ২৫ লাখ মুসলমান সৌদি আরবে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে যান।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন