• আজ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কেজি দরে পতঙ্গ কিনছে পাকিস্তান সরকার

১:১১ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুন ২৪, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ফসলখেকো পঙ্গপালের হানায় বিপর্যস্ত কৃষকদের সহায়তায় ভিন্নধর্মী উদ্যোগ নিয়েছে পাকিস্তান সরকার। পতঙ্গ ধরে সরকারের কাছে বিক্রি করলেই মিলছে অর্থ।

আর এগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে মুরগির খাদ্য হিসেবে। তবে প্রশ্ন উঠেছে কীটনাশকে মৃত পতঙ্গ প্রাণিখাদ্য হিসেবে কতটা নিরাপদ।

আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের পর পঙ্গপালের আক্রমণে বড় বিপর্যয়ের মুখে পড়ে পাকিস্তান। হাজার হাজার হেক্টর জমির ফসল ও সবজি নষ্ট হয়েছে। চাষির ক্ষতি কমাতে তাই পাকিস্তান সরকার হাঁটছে ভিন্ন পথে। ১ কেজি পতঙ্গের জন্য ১১ টাকা করে পাচ্ছেন কৃষকরা। আর সেগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে প্রাণিখাদ্য হিসেবে।

এক গবেষক বলেন, পঙ্গপালে উচ্চমাত্রার প্রোটিন রয়েছে। এটি মানবদেহের জন্য যেমন উপকারী তেমনি মুরগী, হাঁসের মতো প্রাণির জন্যও উপকারী। এখন প্রশ্ন হচ্ছে এটি কিভাবে ব্যবহার করা হবে? আমরা কখনোই কীটনাশক বা ক্ষতিকর স্প্রে ব্যবহার করা হয়েছে এমন পতঙ্গ প্রাণিখাদ্য হিসেবে ব্যবহার করতে পারি না।

পঙ্গপাল নির্মূলে পাকিস্তানকে বন্ধুরাষ্ট্র চীন এক লাখ হাঁস উপহার দেয় এ বছরের শুরুর দিকে। ৫ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েনের পাশাপাশি ব্যবহার করা হচ্ছে হেলিকপ্টার জল কামান। ছিটানো হচ্ছে কীটনাশক। ঘোষণা করা হয় জরুরি অবস্থা। তহবিল দেয়া হয় ৭৩০ কোটি রুপির। তাতেও হয়নি কাজ।

বর্তমানে দেশের নানা দিকে পঙ্গপাল হানা দিচ্ছে। বেলুচিস্তান, পাঞ্জাব, সিন্ধুসহ সব প্রদেশেই বিপর্যস্ত কৃষিজমি। প্রতিদিন দেড়শো থেকে আড়াইশো কিলোমিটার এলাকার ফসল ধ্বংস হচ্ছে।