সংবাদ শিরোনাম
বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের অবনতি, মোদিকে দুষলেন রাহুল | ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা বললেন বাহরাইনের যুবরাজ | ভারতসহ তিন দেশের নাগরিকদের ওপর সৌদির ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা | আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছে ‘হিডেন হিরো’ উপাধি পেল ঝিনাইগাতীর মোশারফ | মানিকগঞ্জে নতুন আরও ১৪ জনের করোনা শনাক্ত | হাতীবান্ধায় উপ-নির্বাচনে ১০ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল | বাগেরহাটে কোষ্টগার্ডের অভিযানে ৩ লাখ বাটা পোনা অবমুক্ত | সাওতাল কিশোরীকে ধর্ষণ, বিমান ও সেনা সদস্যসহ দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা | ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে নৌকায় তুলে ধর্ষণ! ধর্ষক গ্রেফতার | ‘দুর্নীতির প্রশ্নে কোনো ছাড় দেওয়া হচ্ছে না’- স্বাস্থ্যমন্ত্রী |
  • আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সহায়তার ১৪০ কোটি ডলারের চেক মৃতদের নামে!

৬:০১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুন ২৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক
Donald-Trump

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বেড়েই চলেছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ২৫ লাখ চার হাজার ছয়শ ৭৬ জন এবং মারা গেছে এক লাখ ২৬ হাজার সাতশ ৭৬ জন।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তহবিল থেকে যে অর্থ সহায়তা দেয়া হচ্ছে, তার মধ্যে অন্তত ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন বা ১৪০ কোটি মার্কিন ডলারের চেক গেছে মৃত ব্যক্তিদের নামে।

২০১৮-২০১৯ সালে ট্যাক্স দেয়া নাগরিকদের মধ্যে ‘করোনা স্টিমুলাস প্রোগ্রাম’-এর এই চেক ইস্যু করা হয়। ফলে ট্যাক্স দেয়ার পর যারা মারা গেছেন, তাদের নামেও চেক ইস্যু হয়েছে। বিস্তারিত পর্যালোচনার পর বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে ‘দ্য অ্যাকাউন্টেবিলিটি অফিস’ (জিএও)।

‘দ্য অ্যাকাউন্টেবিলিটি অফিস’ (জিএও) জানিয়েছে, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার ফলে সাধারণ মানুষের মতো প্রশাসনের মধ্যেও এক ধরনের অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এ কারণে কর্মহীনদের সহায়তায় সরাসরি চেক পাঠাতে গিয়ে এমন বিভ্রাট সৃষ্টি হয়েছে।

আরো জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের কারণে প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় এখন পর্যন্ত ১৬ কোটি মার্কিনির নামে দু’শ ৬৯ দশমিক তিন বিলিয়ন ডলারের চেক ইস্যু করা হয়েছে। ইস্যু করা চেকের বেশিরভাগ ফেরত আসেনি কিংবা সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা হয়েছে।

অথচ, অ্যাকাউন্টের মালিক মারা গেলে সেই চেক ব্যাংকে জমা হওয়ার কথা নয়, কিংবা মৃত ব্যক্তির নামে ডাকযোগে চেক পাঠানো হলে সেগুলো ফিরে আসার কথা। এ কারণে প্রকৃত তথ্য উদঘাটনের চেষ্টা করছে আইআরএস এবং মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়।

সূত্র: এনবিসি