টায়ার পুড়িয়ে পরিবেশ দূষণ বন্ধে আবারও মানববন্ধন লক্ষীপুরবাসীর

১১:০৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুন ২৮, ২০২০ ঢাকা
Gazipur

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর: গাড়ির পুরাণো টায়ার পুড়িয়ে পরিবেশ দূষণকারী প্রতিষ্ঠান টেকরাইজ বিডি লি: কারখানা বন্ধের দাবিতে আবারো মানববন্ধন করেছে লক্ষীপুরবাসী। পরিবেশ দূষনকারী এ প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবিতে ইতোপূর্বে গত ৬ জুন মানববন্ধন করেছিল এলাকাবাসী।

আজ রোববার(২৮জুন) বিকেলে গাজীপুরের রাজাবাড়ী ইউনিয়নের লক্ষীপুর এলাকায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির সামনে কয়েকশত মানুষ এ মানব বন্ধনে অংশ নেয়।

মানব বন্ধনে অংশ নেয়া কয়েকজন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, পরিবেশের জন্য হুমকি এ প্রতিষ্ঠানটি চালুর পর থেকেই এলাকার শিশুদের শ্বাস জনিত সমস্যা বেড়ে গেছে। সেই সাথে টায়ার পুড়ানো গন্ধে নিশ্বাস নেয়াটাও কষ্টকর হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে আশে পাশের বাড়ি গুলোতে কার্বন ছড়িয়ে পড়ায় পরিবেশ দূষণ বেড়ে গেছে।

তারা আরও জানান, ইতোমধ্যে এই কারখানায় কর্মরত স্থানীয় যুবক, নানক রায়(৩৫) কার্বনের কারণে শ্বাস জনিত সমস্যায় গত ৩ এপ্রিল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছে। এরই প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠান বন্ধের জন্যে গত ৬ জুন আমরা মানববন্ধন করি । এবং এরও আগে গত ফেব্রুয়ারী মাসের ৪ তারিখে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধে  গাজীপুর জেলা প্রশাসক, পরিবেশ অধিদপ্তর, ‍শ্রীপুর থানা, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর যথাযথ ব্যবস্থা নিতে আবেদন করেছিলাম।  তারই ধারাবাহিকতায় গত কয়েকদিন বন্ধ ছিল টায়ার পোড়ানোর কাজ। তবে গতকাল ট্রাকে করে আবারও প্রতিষ্ঠানে  পুরাণো টায়ার ঢুকাতে দেখা গেছে। সেইসাথে জানা গেছে আবারও প্রতিষ্ঠানটি চালুর পায়তারা করছে কতৃপক্ষ।

তাদের দাবি সম্পুন্ন কৃষি নির্ভর এ এলাকাটিতে প্রতিষ্ঠানটির  দূষণের প্রভাব পড়েছে। সবজি আবাদের ক্ষেত্রে ফলন তিনভাগের একভাগে নেমেছে। সেই সাথে মানব দেহে এর প্রভাবের সাথে সাথে বিভিন্ন গৃহপালিত পশুর উপরও এর প্রভাব পড়েছে। শষ্যভান্ডার হিসেবে খ্যাত এই গ্রামের অধিকাংশ মানুষ যেহেতু কৃষির সাথে জড়িত। তাই তাদের দাবি  কৃষি এবং কৃষক বাচাঁতে দ্রুতই ব্যবস্থা নিবে প্রশাসন।

স্থানীয়দের সাথে মানবন্ধনে অংশগ্রহন করেন, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনী সম্পাদক আক্তারউজ্জামান আক্তার, সাবেক জেলা কৃষকলীগ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতানউদ্দিন, রাজাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন, প্রহলাদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিল চন্দ্র দাসসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে গাজীপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো: আব্দুস সালাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, প্রতিষ্ঠানটি অনুমোদনহীন। কোন প্রকার ছাড়পত্র ছাড়াই বিগতদিনে প্রতিষ্ঠাটি কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। প্রতিষ্ঠান বন্ধ এবং অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার বিষয়ে তাদের ইতোমধ্যেই নোটিশ দেয়া হয়েছে। তিনি এলাকাবাসীর সাথে একমত পোষণ করে বলেন, প্রতিষ্ঠানটি চালানোর মতো পরিবেশ সেখানে নেই। তার পরও ‍যদি প্রতিষ্ঠানটিতে টায়ার পোড়ানোর কাজ শুরু করা হয় তাহলে আমরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিব।

উল্লেখ্য, গাজীপুর মহানগরের পূবাইল এলাকায় এই ধরণের একটি প্রতিষ্ঠানে গত কয়েক বছর আগে বিস্ফোরণের কারণে ৮ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন। হতাহতের পর প্রশাসনের শক্ত অবস্থানের কারণে মালিক পক্ষ আজও চালু করতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি।