সংবাদ শিরোনাম
ফরিদপুরে গরীব মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ | লালপুরে গাছ থেকে পড়ে কৃষকের মৃত্যু | কিশোরগঞ্জে আদালতের ব্যতিক্রমধর্মী রায়, নিজ বাড়িতেই সাজা কাটাবেন আসামি! | চুনারুঘাটে ৫০ হাজার শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে | ‘পুলিশ হিসেবে সমাজকে মাদকমুক্ত করার দায় আমাদের’- বিএমপি কমিশনার | রংপুরে গ্রেফতারের পর জোড়া খুনের আসামীর মৃত্যু | শেরপুরে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন: গৃহকর্তাকে গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন | নওগাঁয় বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি, লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি | আড়িয়াল খাঁর গর্ভে দুই শতাধিক বাড়িঘর বিলীন | লালপুরে বন্ধ হচ্ছেনা ভেজাল গুড় তৈরী, দুই কারখানা মালিককে জেল-জরিমানা |
  • আজ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মহাসড়কের হাফ কিলোমিটার রাস্তা জুড়ে গ্যাস লাইনের লিকেজ

৫:১২ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুন ২৯, ২০২০ ঢাকা
Gazipur

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ  ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু করে ক্যাডেট কলেজ এলাকা পর্যন্ত তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন লিকেজ দেখা গেছে।

এছাড়াও মির্জাপুর নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এমন চিত্র চোখে পড়েছে। ফলে ওই গ্যাস লাইন দিয়ে তীব্র গ্যাস বের হচ্ছে। প্রায় তিন বছর যাবৎ এ লিকেজ থাকলেও কর্তপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। রোববার (২৯ জুন) ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গোড়াই ও মির্জাপুর এলাকায় গ্যাসের লিকেজ দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, একটু বৃষ্টি হলেই মহাসড়কের গোড়াই ও মির্জাপুর নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গ্যাসের লাইনে লিকেজ দেখা যায়। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফুটপাতের দোকানীরা ব্যবসা করছেন। তবুও পেটের দায়ে তারা লিকেজের গ্যাস লাইনের উপর বসে ব্যবসা করছে। লিকেজ হওয়া গ্যাসের লাইন তাড়াতাড়ি মেরামত না করলে ওই এলাকায় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার আশস্কা রয়েছে।

গোড়াই ফুটপাতের ফল ব্যবসায়ী মনির বলেন, আমরা সব সময় ঝুঁকির মধ্যে থাকি। আমরা ব্যবসায়ীরা কয়েকবার ফায়ার সার্ভিসকে বিষয়টা জানাইছি কিন্তু কেউ কিছু করেনাই।

মহাসড়কের পাশে ফামের্সী দোকানি রাশেদ অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ তিন বছর ধরে গ্যাসের লাইন সামান্য বৃষ্টি বা পানি থাকলে এ সমস্যা দেখা দেয়। আমরা সব সময় ভয়ে থাকি কখন যেন গ্যাসের লাইন ফেটে আগুন ধরে তাই আমি কৃর্তপক্ষের কাছে অনুরোধ জানাবো খুব তাড়াতাড়ি এই লাইন মেরামত করা হয়।

এ বিষয়ে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড টাঙ্গাইলের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সুরুজ আলম জানান, বিষয়টি আমাদের জানা নেই, এ ব্যাপারে আমাদের কেউ কখনো কিছু বলেনি। বিষয়টি অতিদ্রুত যাচাই করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করবো।’