🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ১১ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

‘ইসরায়েলের সার্বভৌমত্বকে স্বীকৃতি দেবে না যুক্তরাজ্য’- বরিস জনসন

isra
❏ বুধবার, জুলাই ১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ইসরায়েলকে তার সার্বভৌম এলাকা জুডিয়া, সামেরিয়া এবং জর্ডান উপত্যকা পর্যন্ত না বাড়ানোর জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। বুধবার হিব্রু ভাষায় প্রকাশিত ইসরায়েলি দৈনিক ইয়েদিট আহরনট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়েছে।

জনসন বলেন, “ইসরাইলকে রক্ষার জন্য যদিও তিনি আন্তরিকভাবে সচেষ্ট তবে পশ্চিম তীরের কিছু অংশ সংযুক্তি করার পরিকল্পনা হবে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।”

তিনি বলেন, “আমি উদ্বিগ্ন যে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড সংযুক্তি করার প্রস্তাব কোনো ইতিবাচক ফল বয়ে নিয়ে আসবে না।”

তিনি আরো বলেন, “আমি ভয় পাচ্ছি যে তেল আবিব সরকার এ ধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করলে তাতে ইসরাইলের সীমান্ত সুরক্ষিত রাখার উদ্দেশ্য ব্যর্থ হবে এবং এটা হবে ইসরাইলের দীর্ঘ মেয়াদী স্বার্থের পরিপন্থি।”

জনসন বলেন, “আমি জোর আশাবাদী যে পশ্চিম তীর সংযুক্তি করার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার প্রক্রিয়া আর সামনে এগুবে না। যদি এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হয় তাহলে ১৯৬৭ সালের সীমান্তে কোনো পরিবর্তনের প্রতি স্বীকৃতি দেবে না ব্রিটেন। তবে দুই পক্ষের সম্মতির ওপর হলে তা ভিন্ন কথা।”

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন তার নিবন্ধে ফিলিস্তিনি-ইসরাইলের সংকট নিরসনের জন্য এমন একটি সমাধান বের করার আহ্বান জানিয়েছেন যেখানে দু্ই পক্ষের জন্য ন্যায় বিচার এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে।

উল্লেখ্য পয়লা জুলাই ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরের ৩০ শতাংশ জমি অধিগ্রহণ করার লক্ষ্যে একটি বড় পদক্ষেপ নিতে যাবেন বলে আগেই জানা গেছে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শান্তি প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত এই চাল সারা বিশ্বজুড়ে নানামুখী প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে৷

ফিলিস্তিনের পক্ষে থাকা আরব লীগও জানিয়েছে আন্তর্জাতিক আইনের তোয়াক্কা না করে ইসরায়েলের এই অধিগ্রহণ পদক্ষেপ বাস্তবায়িত হলে মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে ধর্মীয় সহিংসতা ছড়িয়ে পড়বে। ইসায়েল এই অধিগ্রহণের পথে অনড় থাকলে ব্যাপক গণ্ডগোল বাধতে পারে৷

সুত্রঃ পার্সটুডে, জিউস নিউজ।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন