করোনা আক্রান্ত বন্ধু রনোকে দেখতে গেলেন ডা. জাফরুল্লাহ

৪:০০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ২, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত মার্কসবাদী নেতা ও সিপিবি প্রেসিডিয়াম মেম্বার হায়দার আকবর খান রনোকে দেখতে গেলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

হাসপাতালে নতুন বিল্ডিং আইসিইউ কার্ডিওলজি কেবিনে বৃহস্পতিবার সাড়ে ১০টার দিকে যান ডা. জাফরুল্লাহ। প্রায় আধা ঘণ্টা শয্যা পাশে দাঁড়িয়ে বন্ধুর চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

এ সময় ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, “উন্নত চিকিৎসার জন্যে আমি যে কোনো আর্থিক সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।”

রনোর দ্রুত সুস্থতা কামনা করে বলেন, “তুমি বাংলাদেশের জীবিত শেষ বিপ্লবী মার্কসবাদী নেতা। দেশের ক্রান্তিকালে আমাদের জনগণের মুক্তির আন্দোলনে তোমাকে বেঁচে থাকতে হবে।”

উপস্থিত চিকিৎসকদের কাছে রনোর স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার সর্বশেষ খবর নেন ডা. জাফরুল্লাহ।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সাথে ছিলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, গণস্বাস্থ্য হাসপাতালের আইসিইউ প্রধান অধ্যাপক ডা. নজীব মোহাম্মদ, রেডিওলজি প্রধান অধ্যাপক ডা. মতিন খান, অধ্যাপক ডা. শওকত আরমান এবং ঢামেক হাসপাতালের আইসিও কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক এবং চিকিৎসকরা।

জানা যায়, হায়দার আকবর খান রনো দীর্ঘদিন ধরেই সিওপিডিতে ভুগছিলেন। স্বাভাবিক অবস্থায়ই তার অক্সিজেন সহায়তা নিতে হয়। এরমধ্যে রনো গত ২৮ জুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। পরদিন তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

১৯৪২ সালে জন্ম নেওয়া রনো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে পড়ার সময় গোপনে কমিউনিস্ট আন্দোলনে যুক্ত হন। ১৯৬২ সালের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলনের সময় তিনি পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃত্বে ছিলেন।

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক রনো ৯০ দশকের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলনসহ এরশাদ পতনের গণঅভ্যুত্থানের সংগঠক ছিলেন। রাজনীতিকের পরিচয়ের বাইরে তিনি তাত্ত্বিক ও লেখক। তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ১৩।

Skip to toolbar