• আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকছেন পুতিন!

৯:৪৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ২, ২০২০ আন্তর্জাতিক
putin-reuters

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আগামী ২০৩৬ সাল পর্যন্ত দেশ শাসনের বৈধতা অর্জন করেছেন। সংবিধান পরিবর্তন নিয়ে দেশব্যাপী ভোটাভুটি হয়েছে এবং তাতে তিনি বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। এর ফলে পুতিন আরো দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

জানা গেছে, পুতিনের ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে সম্প্রতি পার্লামেন্টে পাস হওয়া সংবিধান সংশোধনের ওপর সাত দিনব্যাপী ভোট গ্রহণ বুধবার শেষ হয়েছে। দেশটির নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, ৭৭ দশমিক ৯৩ শতাংশ ভোটার সংবিধান সংশোধনের পক্ষে এবং ২১ দশমিক ২৬ শতাংশ বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। মোট ভোটার উপস্থিতি ছিল ৬৪ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বিতীয় দফায় পুতিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ২০২৪ সালে। দেশটির সংবিধান অনুযায়ী এরপর প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে পারবেন না পুতিন। তাই সংবিধান সংশোধনের এই উদ্যোগ। ভোটে সংবিধান সংশোধনের পক্ষে রায় আসায় তিনি আরও দুই মেয়াদে (৬ বছর করে) ২০৩৬ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

উল্লেখ্য প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ২০০০ সাল থেকে দুই মেয়াদে চার বছর করে মোট আট বছর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ছিলেন। এর পর সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা পালন করতে তিনি নিজের অনুগত রাজনীতিবিদ দিমিত্রি মেদভেদেভকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী করে নিজে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন। ২০১২ সালে মেদভেদেভের মেয়াদ শেষ হলে পুতিন আবার প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসেন।

ক্ষমতার মেয়াদ দীর্ঘ করতে প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ৪ বছরের জায়গায় ৬ বছর করেন পুতিন। ২০২৪ সালে প্রেসিডেন্ট হিসেবে টানা দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন শেষ হবে ভ্লাদিমির পুতিনের।গণভোটে জয়ী হওয়ার ফলে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত নিশ্চিন্তে ক্ষমতায় থাকতে পারছেন সাবেক কেজিবি প্রধান।