সংবাদ শিরোনাম
জীবনসঙ্গিনী খুঁজে নিলেন চাহাল | এবার ১২০০ কোটি রুপি ব্যয়ে আকাশছোঁয়া ‘হনুমানের মূর্তি’ তৈরি হচ্ছে ভারতে | লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা বৃদ্ধি, আবারো চীনা সেনা মোতায়েনের দাবি ভারতের | হাজিদের পাথর নিক্ষেপে পদদলিত হয়ে মৃত্যু থামিয়ে ছিলেন এই বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়ার | লামায় ৯ বছরের শিশু ধর্ষিত, ধর্ষক আটক | পিরোজপুরে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের দুই ভুয়া কর্মকর্তা গ্রেপ্তার | বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে তানোরে সেলাই মেশিন বিতরণ | ‘করোনার চেয়েও বড় সংকট হয়তো সামনে আসছে’- বিল গেটস | সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ | কাউখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টা, লম্পট গ্রেফতার |
  • আজ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বুটেক্সে শুরু হচ্ছে অনলাইন ক্লাস

১১:০৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
Butex

বুটেক্স প্রতিনিধিঃ  আগামীকাল, ৫ ই জুলাই থেকে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু হচ্ছে অনলাইন ক্লাস। শুধুমাত্র প্রথম বর্ষের অর্থাৎ ৪৬ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে। “জুম” অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিটি বিষয়ের লাইভ ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে, তবে পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে প্রয়োজনে রেকর্ডেড ক্লাস আপলোড করার ব্যাবস্থা করা হতে পারে। বিষয়গুলো “সময়ের কন্ঠস্বর” কে নিশ্চিত করেছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. আবুল কাশেম।

অনলাইন ক্লাসের প্রস্তুতি হিসেবে  বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে ক্লাস রুটিন এবং ইতোমধ্যে আজকে পরীক্ষামূলকভাবে টিএমডিএম-৪৬ তম ব্যাচের একটি ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টের অরিয়েন্টেশনের তারিখ এবং সময় উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে।  অরিয়েন্টেশন এবং অনলাইন ক্লাসের লিংক শিক্ষার্থীদের প্রদানকৃত ইমেইল ঠিকানায় পাঠানো হবে বলে উল্লেখ করা হয় প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে।

এদিকে বাকি ব্যাচগুলোর সেমিস্টার পরীক্ষার আগে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের ব্যাপারে কি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য জানান, “আপাতত অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি নেই, যতদিন এ অনুমতি না পাওয়া যাচ্ছে ততদিন আমরা পরীক্ষা নিতে পারবো না। তবে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে কথা বলছি। পরীক্ষা ব্যতিরেখে এসকল ব্যাচগুলোর পরবর্তী সেমিস্টার শুরু করার অনুমতি চাওয়া হয়েছে। যদি এই অনুমতি পেয়ে যাই তবে আমরা তাদের ক্লাস শুরু করবো। আগামীতে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে দুই সেমিস্টারের পরীক্ষা একসাথে নেওয়া হবে”। এছাড়া একটা পরীক্ষার জন্য আটকে থাকা ৪২ তম ব্যাচের ব্যাপারে বিশেষভাবে চিন্তা করা হবে বলে জানান তিনি।

এছাড়া সরকার, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ইউজিসির সিদ্ধান্ত সাপেক্ষে শিক্ষার্থীদের উচ্চগতিসম্পন্ন ইন্টারনেট সেবা প্রদানের ব্যাপারেও আশাবাদ ব্যাক্ত করেন তিনি। তিনি বলেন, “করোনা আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা অনেকটা পিছিয়ে দিয়েছে, আমরা আর পিছিয়ে থাকবো না। করোনাকে সাথে নিয়েই আমরা এগিয়ে যাবো”।

এদিকে অনলাইন ক্লাসকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন ৪৬ ব্যাচের অধিকাংশ শিক্ষার্থী। এই ব্যাপারে ৪৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী  “আলিফ আশরাফুল” সময়ের কন্ঠস্বর কে জানান, ” কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েও কোনো ক্লাস পাইনি, ফলে আমাদের মাঝে ক্লাস করার একটা আগ্রহ তৈরি হয়েছে। প্রথম বর্ষ হওয়ায় পাঠ্য পরিকল্পনা সম্পর্কে কোনো ধারণা না থাকায় লেখাপড়া শুরু করতে পারছি না এবং একঘেয়েমিতে দিন কাটছে । এই পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অনলাইন ক্লাসের উদ্যোগ কে আমি সাধুবাদ জানাই। এর ফলে আমাদের লেখাপড়ার প্রতি যেমন আগ্রহ তৈরি হবে পাশাপাশি শিক্ষক এবং সহপাঠীদের সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পাবো।

অনলাইন ক্লাস আসলে কতটা কার্যকর ভূমিকা রাখবে এমন প্রশ্নের জবাবে বুটেক্স রসায়ন বিভাগের প্রধান “অধ্যাপক ড. আজমল মোর্শেদ ” সময়ের কন্ঠস্বর কে জানান, “শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীর স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ থাকলে বাস্তব ক্লাসের মতোই কার্যকরী হবে অনলাইন ক্লাস”। আজকের ট্রায়াল ক্লাসে শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ এবং উচ্চ উপস্থিতি তাকে মুগ্ধ করেছে বলেও জানান তিনি।

Skip to toolbar