সংবাদ শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীকে খুশি করতে সরকারের লোকজন বলছেন করোনা নিয়ন্ত্রণে: রিজভী | ‘গণমানুষের আস্থা ও ভালোবাসার রাজনৈতিক শক্তি হচ্ছে জাতীয় পার্টি’- জি এম কাদের | ‘বিএনপি সমালোচনা আর মিথ্যাচারের বৃত্তে আবর্তিত হচ্ছে’- কাদের | পুলিশের গুলিতে নিহত সিনহা রাশেদের মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন | চীনের ভ্যাকসিনের ফল সন্তোষজনক হলে স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর প্রয়োগ: স্বাস্থ্য সচিব | শিশুদের মসজিদে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলো উজবেকিস্তান | মানিকগঞ্জে বন্যা দূর্গত এলাকায় নৌবাহিনীর খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদান | মাগুরায় বাসচাপায় নিহত ১ | নবীগঞ্জের নতুন ইউএনও শেখ মহি উদ্দিন | বানভাসীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন বিএনপি নেতা ফরহাদ ইকবাল |
  • আজ ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারতকে এতবার হারাতাম যে ম্যাচ শেষে মাফ চাইত: আফ্রিদি

৩:১৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুলাই ৫, ২০২০ খেলা
afr

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ করোনায় আক্রান্ত হয়ে বেশ কিছু দিন দৃশ্যপটের বাইরে থাকলেও সুস্থ হয়ে ফিরে আবারও খবরের শিরোনামে পাকিস্তানের সাবেক তারকা ক্রিকেটার শহিদ আফ্রিদি। এবার ভারতকে নিয়ে এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেলেন আফ্রিদি।

শনিবার একটি সাক্ষাৎকারে সাবেক অল-রাউন্ডার বলেছেন, ‘আমি সবসময় ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলাটা উপভোগ করতাম। আসলে দুটিই বড় দল। ওদের বিপক্ষে ভালো খেলার চাপ বেশি থাকে। আমার মনে হয় ভারতের বিপক্ষে আমি ভালোই খেলেছি। ওদের বেশ ভালই ‘মেরেছি’। এত মেরেছি যে ম্যাচের শেষে এসে ক্ষমা চাইত।’

একটি ইউটিউব শো’য়ে অতিথি হয়ে এসে এমন মন্তব্য করেন আফ্রিদি। ১৯৯৯ সালে চেন্নাই টেস্টে তাঁর ১৪১ রানের ইনিংসটি কখনোই ভুলতে পারেন না তিনি। সে টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনিংয়ে নেমে ২১ বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ভারতীয় বোলিং কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর সেই ইনিংসেই অন্য দিকে নিয়মিত উইকেট হারিয়েও পাকিস্তান করেছিল ২৮৬। শচীন টেন্ডুলকারের বীরত্বের পরেও পাকিস্তান সে টেস্টে তুলে নিয়েছিল দারুণ এক জয়।

আফ্রিদি সেই ১৪১ রানের ইনিংসকে তাঁর ক্যারিয়ারের বড় অর্জনই মনে করেন, ‘সেই ১৪১ রানের ইনিংস আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে স্মরণীয় ইনিংস। ১৯৯৯ সালে আমার প্রথমে যাওয়ার কথা ছিল না। আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওয়াসিম ভাই (ওয়াসিম আকরাম) নির্বাচকদের সঙ্গে লড়াই করেই আমাকে দলে নিয়েছিলেন। কঠিন সে সফরে ওই ইনিংসটি ছিল ওয়াসিম ভাই ও আমার মুখরক্ষার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

ভারতের বিপক্ষে আফ্রিদির পারফরম্যান্স সব সময়ই ভালো। ক্যারিয়ারে ভারতের বিপক্ষে খেলেছেন ৬৭টি ওয়ানডে আর ৮ টেস্ট। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে তাঁর সংগ্রহ ১ হাজার ৫২৪ রান, টেস্টে ৭০৯।

উল্লেখ্য ১৯৯৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক আফ্রিদির। পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন ২০১৮ পর্যন্ত। তার দীর্ঘ ২২ বছরের ক্যারিয়ার চলাকালীন তিন সংস্করণে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছে ১০২ বার। এরমধ্যে দুদলের জয়ই সমান ৪৭টি করে।

আইসিসি বিশ্বকাপের হিসাব নিলে আফ্রিদির কথার বরং উলটো অবস্থা। এখনো পর্যন্ত বিশ্বকাপের কোন ম্যাচে ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। ভারতের বিপক্ষে আইসিসির কোন ইভেন্টে পাকিস্তানের একমাত্র জয় ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে।

Skip to toolbar