সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রচলিত আজব কিছু কুসংস্কার | টিকটক সেলিব্রেটি ‘অফু বাই’ গ্রেফতার | শচীনের ব্যাটেই ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন আফ্রিদি! | বাউফলে পানিতে ডুবে একই পরিবারের তিন বোনের মর্মান্তিক মৃত্যু | হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে হামলা: যুবলীগ নেতাসহ জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি | ‘শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন সঠিক নেতৃত্বে দুর্যোগ মোকাবেলা করা সম্ভব’- তথ্যমন্ত্রী | সাবেক সেনা কর্মকর্তার মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের বিবৃতি | কুড়িগ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু | নেপালে ভূমিধসে আট নির্মাণশ্রমিকসহ ১০ জনের মৃত্যু | কোরবানির মাংস সংগ্রহ করতে গিয়ে নিখোঁজ, পানি থেকে ভাসমান মরদেহ উদ্ধার |
  • আজ ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সিলেটে হত্যাচেষ্টা মামলায় হাসপাতালের অফিস সহকারী নূর মোহাম্মদ জেলে

২:৩৭ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুলাই ৭, ২০২০ দেশের খবর, সিলেট

সিলেট প্রতিনিধি- সিলেটে হত্যাচেষ্টা ও মারধরের মামলায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী ও শামীমাবাদ এলাকার বাসিন্ধা মুসলিম খলিফার ছেলে নূর মোহাম্মদ (৩৩) জেলে পাঠিয়েছেন আদালত।

দীর্ঘদিন পলাতক থাকার মঙ্গলবার (৭ জুলাই) আদালতে হাজির হয়ে জামিনের জন্য আবেদন করেন। আদালত তার নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

হত্যাচেষ্টা ও মারধরের মামলায় প্রধান আসামি ছিলেন অফিস সহকারী নূর মোহাম্মদ। যার মামলা নং- কোতোয়ালী সি আর ৫৫৪/১৯।

ওই মামলায় আসামিরা হলেন, সিলেট সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক অফিস সহকারী বর্তমান দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নূর মোহাম্মদ, সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিম, স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানসহ একটি চক্র।

এদেরমধ্যে রেজাউল ওসমানী হাসপাতালে এবং বাকি তিনজন ওসমানীর আওতাধীন সদর ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে কর্মরত আছেন। নূর মোহাম্মদ দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

এদের মধ্যে সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিমকে গত ৫ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে। পরের দিন শুক্রবার আদালতে তাদের হাজির করা হয়।

পরে আদালত এই দুই নার্সকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানকে আদালতে হাজির হলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জর করেন।

Skip to toolbar