করোনা ধারের কাছেই আসবে না, এন্টিবডি ট্রায়াল চূড়ান্ত!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনাকে ধংস করে দিতে সক্ষম এমন অ্যান্টিবডির খোঁজে রাত-দিন এক করে গবেষণা চালাচ্ছেন স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা। এছাড়াও করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে ওঠা মানুষের অ্যান্টিবডি কাজে লাগিয়ে এই ভাইরাসকে প্রতিহত করার চেষ্টা করছেন একদল বিজ্ঞানী।

এর মধ্যেই আশার কথা শোনাচ্ছে করোনা-রোধী অ্যান্টিবডি নিয়ে গবেষণা করা মার্কিন বায়োটেকনোলজি সংস্থা রিজেনেরন । করোনা-রোধী শক্তিশালী অ্যান্টিবডি নিয়ে চুড়ান্ত পর্বের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করলেন রিজেনেরনের বিজ্ঞানীরা।

মার্কিন বায়োটেকনোলজি সংস্থার বিজ্ঞানীদের তৈরি এই অ্যান্টিবডি আসলে একাধিক করোনা-রোধী অ্যান্টিবডির সংমিশ্রণ বা ‘কক্টেল’। এটির প্রয়োগের ফলে শরীরে এমন প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয় যা করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা প্রায় ১০০ শতাংশ হ্রাস করে বলে দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা।

রিজেনেরন-এর বিজ্ঞানীদের দাবি, তাঁদের তৈরি এই অ্যান্টিবডি ‘কক্টেল’ এতটাই শক্তিশালী যে, কোনও করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে এলেও সংক্রমণের কোনও রকম ভয় নেই!

রিজেনেরন-এর বিজ্ঞানীদের তৈরি এই অ্যান্টিবডি ‘কক্টেল’-এর তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু হয়েছে। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে বিজ্ঞানীরা করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর ক্ষেত্রে অ্যান্টিবডির কার্যকারিতা পরখ করে নেবেন।

অ্যান্টিবডির তৃতীয় পর্যায়ের এই ট্রায়ালকে বিজ্ঞানীরা তাই ‘প্রতিরোধের পরীক্ষা’ বলেই উল্লেখ করেছেন। সোমবার সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তৃতীয় পর্যায়ের এই ট্রায়ালে ২,০০০ জন করোনা রোগীর উপর এই অ্যান্টিবডি ‘কক্টেল’ প্রয়োগ করে দেখা হবে।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter