🕓 সংবাদ শিরোনাম

ফরিদপুরে গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে আল্লাহর নামসিনহা হত্যা মামলা: ২৭ জুন ওসি প্রদীপের জামিন শুনানিগুলি করেন পুলিশের এএসআই, নিহত তিনজনের ২ জন তারই স্ত্রী-ছেলেজি-৭ জোটকে হুঁশিয়ারি দিলো চীনপরীক্ষা এক বছর না দিলে বিরাট ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রীকর্মীদের আন্দোলনের দিবাস্বপ্ন দেখাচ্ছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদেরকরোনাকালে নার্সদের উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিতে বিভিন্ন হাসপাতালে ছুটে যাচ্ছেন মহাপরিচালকপ্রকাশ্যে একই পরিবারের ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, হামলাকারী এএসআই আটকযমুনা নদীর তীররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৬ মাসের মধ্যেপাবনার চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যু

  • আজ রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৩ জুন, ২০২১ ৷

এবার সব ভারতীয় টিভি চ্যানেল বন্ধ করে দিল নেপাল

nepal
❏ বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সীমান্ত বিরোধের জেরে ভারতের সঙ্গে নেপালের উত্তেজনা বাড়ছেই। এমন পরিস্থিতিতে বড় পদক্ষেপ গ্রহণ করল নেপাল সরকার। দেশটিতে ভারতীয় দূরদর্শন টিভি ছাড়া বাকি সব টিভি চ্যানেল বন্ধ করে দিয়েছে তারা। বৃহস্পতিবার বিষয়টি জানিয়েছেন নেপালের কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্র এবং প্রাক্তন উপ প্রধানমন্ত্রী নারায়ন কাজি শ্রেষ্ঠা।

নেপাল সরকারের পক্ষে অভিযোগ করা হয়েছে যে, নেপাল সরকার এবং সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে লাগাতার মিথ্যা প্রচার চালানো হচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম একতরফাভাবে প্রধানমন্ত্রী ওলির পদত্যাগের বিষয়ে খবর করে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ সে দেশের।

নারায়ন কাজি শ্রেষ্ঠা বলেন, নেপালের সরকার এবং আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। যা সব সীমালঙ্ঘন করেছে। এই সমস্ত বিষয় দ্রুত বন্ধ হওয়া উচিৎ।

সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নেপালের এক কেবল অপারেটর জানিয়েছেন, তাঁদের সমস্ত ভারতীয় সংবাদমাধ্যম না দেখানোর জন্যে বলা হয়েছে। আর সেই নির্দেশ আসার পরেই আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে নেপালে সমস্ত ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য কয়েক দিন ধরেই চীনের সঙ্গে সংঘাতের পাশাপাশি শিরোনামে উঠে এসেছে ভারত-নেপাল বিরোধ। নেপালের মানচিত্রে ভারতের একাধিক জায়গাকে দেখানো হয়েছে। আর তা দেখানোর পর থেকেই ভারত এবং নেপালের সম্পর্ক উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। যার জেরে খোদ নেপালে নিজের দলেরই বিরোধের মুখে পড়েছেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী।

এই খবরগুলো সামনে আসার পরেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো নিয়ে এমন সিদ্ধান্ত নিল নেপাল। তবে ভারতের সব চ্যানেল নেপালে বন্ধ করে দেওয়া নিয়ে এখনও ভারতের পক্ষ থেকে কিছুই জানানো হয়নি।