সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পোলিও মনিটরিং বোর্ডে বাংলাদেশের সেঁজুতি

১২:৩০ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, জুলাই ১২, ২০২০ সাফল্যের বাংলাদেশ
ban

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ চাইলড হেলথ ফাউন্ডেশনের ড. সেঁজুতি সাহাকে পোলিও ট্রানজিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট মনিটরিং বোর্ডে (টিআইএমবি) নিয়োগ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। বৈশ্বিক পোলিও নির্মূল কর্মসূচির (জিপিইআই) এই বোর্ড মূলত পোলিও প্রতিরোধ বিষয়ক পরিকল্পনা প্রক্রিয়ার নির্দেশনা ও পর্যক্ষেণ করে। সেঁজুতি সাহাই প্রথম কোনো বাংলাদেশী হিসেবে এই বোর্ডে স্থান পেলেন।

চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (সিএইচআরএফ) ওয়েবসাইটে এক বিবৃতি দিয়ে সেঁজুতি সাহার নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

২০১৮ সালের মে মাসে বিশ্ব স্বাস্থ্য পরিষদের অনুমোদনের পর পোলিও সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করছে ডব্লিউএইচও। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টিআইএমবি বোর্ডে সভাপতি হিসেবে রয়েছেন যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা স্যার লিয়াম ডোনাল্ডসন। তিনি একইসঙ্গে লন্ডন স্কুল অব হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিনের পাবলিক হেলথ বিভাগের অধ্যাপক।

এ বছর তিনজনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ডা. সেঁজুতি সাহা ছাড়াও সম্প্রতি নিয়োগ পাওয়া বাকি দুজন বোর্ড সদস্য হলেন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ বিভাগের অধ্যাপক শেইলা লেথারম্যান এবং নাইজেরিয়ার প্রখ্যাত চিকিৎসক ডা. লোলা ডেয়ার। ত্রিশ বছর ধরে তিনি স্বাস্থ্যখাতের নানা পদে যুক্ত।

করোনা ছড়িয়ে পড়ার পর গত মে মাসে বাবার সঙ্গে যৌথভাবে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাসের জিন–নকশা (জিনোম সিকোয়েন্স) উন্মোচন করে আলোচনায় আসেন সেঁজুতি। তারা বাবা সমীর সাহা চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ও ঢাকা শিশু হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক।

অধ্যাপক সমীর সাহা এবং তার মেয়ে ড. সেঁজুতি সাহার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। তিনি বলেন, তারা সংক্রামক রোগের ভ্যাকসিনের পাশাপাশি তথ্যউপাত্ত ও রোগ নির্ণয়ের অত্যাধুনিক ব্যবস্থাপনা প্রয়োগ করছেন। ভ্যাকসিন নিয়ে তাদের গবেষণার সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশের পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশও।

Skip to toolbar