সংবাদ শিরোনাম

নিউমাকের্ট থেকে হেফাজতের আরও এক নেতা গ্রেফতারমেলান্দহে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, ড্রেজার মেশিনে আগুন দিয়ে ধ্বংসউৎপাদন বাড়াচ্ছি, শিগগিরই বাংলাদেশ টিকা পাবে: দোরাইস্বামীশরীয়তপু‌রে পা‌রিবা‌রিক দ্ব‌ন্দে স্ত্রীর ওপর অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যামাগুরায় কৃষি পণ্য উৎপাদনে জনপ্রিয় হচ্ছে ‘চাঁদের হাট’ সমন্বিত কৃষি খামার প্রকল্পহেফাজতের যুগ্ম-মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী গ্রেপ্তারকরোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে সতর্ক করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রীপিরোজপুরে একমাসে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত ১৮০০ জনবিমানবন্দরে অস্ত্র-গুলিসহ চিকিৎসক দম্পতি আটকটাঙ্গাইলে গৃহবধূকে রাতভর গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

  • আজ বৃহস্পতিবার। গ্রীষ্মকাল, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। বিকাল ৫:২২মিঃ

ভারতের শুকনো মরিচবাহী প্রথম পার্সেল ট্রেন বেনাপোল বন্দরে

⏱ | সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০ 📁 খুলনা
Benapol

মহসিন মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধি   : বেনাপোল বন্দর দিয়ে  ভারত থেকে এই প্রথম রেলের র‌্যাকে শুকনা মরিচের বড় চালান আমদানি হয়েছে।  ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ থেকে শুকনো মরিচ বহনকারী প্রথম চালান পার্সেল ট্রেন যোগে বেনাপোল বন্দরে  এসে পৌঁছেছে সোমবার বিকেলে।

ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ ৩৮০ টন শুকনো মরিচ ভর্তি ১৮টি উচ্চ ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন পার্সেল ভ্যানের একটি বিশেষ পার্সেল ট্রেন পাঠায় বাংলাদেশে। ভারত থেকে শুকনো মরিচবাহী প্রথম পার্সেল ট্রেন এপার্সেল এক্সপ্রেসটি (এসপিই) ভারতের গুন্টুরের রেড্ডিপালেম থেকে বাংলাদেশের বেনাপোল পর্যন্ত ১৩৭২ কিলোমিটারের বেশি পথ অতিক্রম করে। পণ্য চালনটির আমদানীকারক রাফসান ট্রেডার্স,সাতক্ষীরা ও হাফিজ কর্পোরেশন,ঢাকা  বেনাপোলের আলম এন্টারপ্রাইজ ও মোশারেফ ট্রেডার্স সিএন্ডএফ এজেন্ট পন্য চালানটি ছাড় করার জন্য প্রয়োজণীয় ডকৃুমেন্টস সাবমিট করেছে।

বেনাপোল কাস্টমস হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার ড. নেয়ামুল ইসলাম বলেন, ভারত থেকে ৩৮০ টন শুকনো মরিচ ভর্তি ১৬টি উচ্চ ধারণক্ষমতাসম্পন্ন পার্সেল ভ্যান সমন্বিত একটি বিশেষ পার্সেল ট্রেন বেনাপোলে বন্দরে এসেছে। যাতে দ্রুত পণ্য চালনটি শুল্কয়ন ও খালাশ করা হয় সেই জন্য কাস্টমস কর্মকর্তারা কাজ করেছে। তবে মরিচের এই চালান থেকে সরকার ৭০ লক্ষা টাকার রাজস্ব আদায় করেছে।

ভারতীয় হাইকমিশন সরবরাহ শৃঙ্খলার এই বিঘœ হ্রাস করতে বাংলাদেশ রেল কর্তৃপক্ষকে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে পার্সেল ট্রেন পরিষেবা সহজতর করার প্রস্তাব দেয়। বাংলাদেশ রেল কর্তৃপক্ষ তাতে সম্মতি জানানোর পরে প্রথম পার্সেল ট্রেন সেবার জন্য পণ্য একত্রিত করা হয়। এই পার্সেল ট্রেন পরিষেবা উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণে ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছে ভারতীয় হাইকমিশন।