সংবাদ শিরোনাম

ঠাকুরগাঁওয়ের আলোচিত সেই লিচু গাছ পরিদর্শনে ইউএনও ও কৃষি অফিসারসালথায় তান্ডব: সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান পাঁচ দিনের রিমান্ডেকরোনায় একদিনে আরও ৯৮ জনের মৃত্যুনিউমাকের্ট থেকে হেফাজতের আরও এক নেতা গ্রেফতারমেলান্দহে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, ড্রেজার মেশিনে আগুন দিয়ে ধ্বংসউৎপাদন বাড়াচ্ছি, শিগগিরই বাংলাদেশ টিকা পাবে: দোরাইস্বামীশরীয়তপু‌রে পা‌রিবা‌রিক দ্ব‌ন্দে স্ত্রীর ওপর অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যামাগুরায় কৃষি পণ্য উৎপাদনে জনপ্রিয় হচ্ছে ‘চাঁদের হাট’ সমন্বিত কৃষি খামার প্রকল্পহেফাজতের যুগ্ম-মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী গ্রেপ্তারকরোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে সতর্ক করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • আজ বৃহস্পতিবার। গ্রীষ্মকাল, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সন্ধ্যা ৬:১৩মিঃ

গাইবান্ধায় হু হু করে বাড়ছে পানি, ভয়াবহ বন্যার শঙ্কা

⏱ | সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০ 📁 দেশের খবর, রংপুর

ফরহাদ আকন্দ, স্টাফ রিপোর্টার- গাইবান্ধায় দ্বিতীয় দফায় আবারও নদনদী গুলোতে পানি বাড়তে শুরু করেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বেড়ে বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে চরাঞ্চলের নিম্নাঞ্চলগুলোতে নতুন করে পানি প্রবেশ করে চার উপজেলার অন্তত ৩০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

বাঁধে ও বিভিন্ন স্কুল ঘরে আশ্রয় নেয়া লোকজন বাড়িতে ফিরতে শুরু করলেও নতুন করে পানি বাড়ায় আবারও নিরাপদ স্থানে ফিরে যাচ্ছেন যেতে শুরু করেছেন তারা।

সোমবার (১৩ জুলাই) সকালে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার বালাসীঘাট এলাকার মালেক মিয়া বলেন, বন্যার পানি কমতে শুরু করেছিল। বাঁধ থেকে বাড়িতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম কিন্তু হঠাৎ করে শনিবার থেকে আবারও পানি বাড়তে শুরু করেছে। এ অবস্থায় বাড়িতে যাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছি আপাতত। পরিবার ও গবাদি পশু নিয়ে বাঁধেই থাকছি।

আমিনুল ইসলাম নামে আরেকজন জানান, প্রতিবছর বন্যায় আমাদের কষ্ট পোহাতে হয়। পানি উন্নয়ন বোর্ড শুকনো মৌসুমে ঠিকমতো বাঁধের কাজ করলে এত কষ্ট আমাদের সহ্য করতে হত না। শুধু বন্যা আসার পর তাদের তৎপরতা দেখা যায়। সারাবছর তাদের খুঁজে পাওয়া দায়।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোকলেছুর রহমান ‌’সময়ের কণ্ঠস্বর’ কে জানান, পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী তিন দিন পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে। নদনদীগুলোতে পানি বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার উপরে ওঠার আশঙ্কা রয়েছে। এতে করে গত বছরের বন্যাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে এবারের বন্যা।

তিনি আরও জানান, পূর্ব প্রস্ততি হিসেবে সবগুলো বাঁধে নজরদারি রাখা হচ্ছে পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত পয়েন্টগুলোতে মেরামতের কাজ চলছে।