সংবাদ শিরোনাম
চমেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ওপর হামলার জেরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি | টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ব্রিজ ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন | দক্ষিণ সুদানে শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নিতে ১৩৪ জন নৌসদস্যের ঢাকা ত্যাগ | সাতক্ষীরায় আওয়ামীপন্থী সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ১০ | এতিমরা একা নয়; যতদিন বেঁচে আছি ততদিন এতিমদের পাশে আছিঃ প্রধানমন্ত্রী | টেনিস বলের নামে আফিম আমদানি! দায় এড়াতে “হাস্যকর” দাবী আমদানীকারকের | মাছের সাথে কেন এমন শত্রুতা? | সিনহা হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন | হিলিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন | অনলাইন ক্লাসের জন্য স্মার্টফোন পাচ্ছেন ইবি শিক্ষার্থীরা |
  • আজ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জেলহাজতে থাকা ইবির সেই কর্মচারী বরখাস্ত

১২:০৪ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুলাই ১৪, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
iuu

ইবি প্রতিনিধি: রবীন্দ্রমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আরাফাত হত্যা মামলায় জেলহাজতে থাকা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বরখাস্তকৃত ওই কর্মচারী ইলিয়াস জোয়ার্দার। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের নেটওয়ার্ক টেকনিশিয়ান এবং মামলার পঞ্চম নম্বর আসামী।

এদিকে এ সংক্রান্ত এক অফিস আদেশ জারী করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। উক্ত আদেশে বলা হয়, শৈলকূপা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মহসীন হােসেনের গত ৮ জুলাই এক লিখিত চিঠিতে জানান, আইসিটি সেলের নেটওয়ার্ক টেকনিশিয়ান ইলিয়াস জোয়ার্দার গত ৬ জুলাই আদালতে আত্মসমর্পন করেন। আত্মসমর্পনের পর বিজ্ঞ আদালত জামিন নামঞ্জুর করে ওই কর্মচারীকে জেলহাজতে পাঠায়। এমতাবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী দক্ষতা ও শৃঙ্খলা বিধির ১৫-এ ধারা মােতাবেক তাকে নেটওয়ার্ক টেকনিশিয়ান পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলাে। তবে বরখাস্তকালীন জীবনধারণ ভাতা পাবেন তিনি।

তবে একই মামলায় জেলহাজতে থাকা আরেক কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। ওই কর্মচারী আব্দুর রাজ্জাক। তিনি অত্র মামলার দ্বিতীয় নম্বর আসামী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক মজুরী ভিত্তিক কর্মচারী ছিলেন। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার বিষয়ে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ বলেন, তিনি আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত কোন কর্মচারী নন। দৈনিক মজুরী ভিত্তিক কর্মচারী ছিলেন। যেহেতু তিনি আমাদের কেউ নন, তাই তার বিরুদ্ধে আমরা কোন সিদ্ধান্ত নেয় নি।

উল্লেখ্য, গত ২৮ এপ্রিল পারিবারিক কলহের জেরে ইবি ক্যাম্পাস পার্শ্ববর্তী শেখপাড়া এলাকায় প্রতিপক্ষের আঘাতে নিহত হন আরাফাত হোসেন। পরে গত ৬ জুলাই ইলিয়াস এবং ৭ জুলাই রাজ্জাক ঝিনাইদহ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (প্রথম) আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে তাদের জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

Skip to toolbar