সংবাদ শিরোনাম

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট নিয়ে যা বললেন চিকিৎসক২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেন কাদের মির্জাটাঙ্গাইলে ভন্ড পুরুষ কবিরাজ নারী সেজে যুবককে বিয়ে! অতঃপর…ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার ঢাকা ভ্রমণ!শেরপুরের সেই শিশু রোকনের পরিবারের পাশে ইউএনও!কক্সবাজারে অস্ত্রসহ ডাকাতি মামলার আসামি গ্রেফতারকক্সবাজারে অনুপ্রবেশকারীর পক্ষ না নেয়ায়, আ’লীগ সভাপতিকে অব্যাহতি!শাহজাদপুরে ট্যাংকলরি সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১রমজান মাসে আলেমদের হয়রানি মেনে নেয়া যায় না: নুরুল ইসলাম জিহাদীখালেদা জিয়াকে পাকিস্তান-জাপান দূতের চিঠি

  • আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

তৃতীয় মেয়াদে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন ফজলে কবির

৮:২২ অপরাহ্ন | বুধবার, জুলাই ১৫, ২০২০ অর্থনীতি
bangbank

অর্থনীতি ডেস্কঃ বয়সসীমা কাটানোর জন্য আইন সংশোধন করে আবারো বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে ফজলে কবিরকে। এর ফলে তৃতীয় মেয়াদে আবারো একই পদে থাকছেন তিনি।

বুধবার (১৫ জুলাই) অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের উপ-সচিব মো. জেহাদ উদ্দীন স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার, ১৯৭২ (১৯৭২ সালের রাষ্ট্রপতির আদেশ নং. ১২৭) যা বাংলাদেশ ব্যাংক (সংশোধিত) আইন, ২০২০ দ্বারা সংশোধিত এর অনুচ্ছেদ ১০(৩) এবং ১০(৫) এর বিধান অনুযায়ী ফজলে কবিরকে তার ৬৭ বছর পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ ৩ জুলাই ২০২২ পর্যন্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হিসাবে নিয়োগ করা হলো।’

এতে আরও বলা হয়েছে, ‘ফজলে কবির গভর্নর পদে নিয়োজিত থাকা সময়ে সরকারের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তির শর্ত অনুযায়ী বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে গ্রহণ করবেন। এ নিয়োগের অন্যান্য বিষয় উল্লিখিত চুক্তিপত্র দ্বারা নির্ধারিত হবে।’

এর আগে রিজার্ভ কেলেঙ্কারির ঘটনায় ড. আতিউর রহমানের পদত্যাগের পর ২০১৬ সালে দেশের ব্যাংক খাতের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে নিয়োগ পান সাবেক এই সচিব। চার বছর দায়িত্ব পালনের পর মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩৪ দিন আগে আবারো সরকার তাকে নিয়োগ দেয়। গত ৩ জুলাই ফজলে কবিরের বয়স ৬৫ বছর হওয়ার সুবাদে তার মেয়াদ শেষ হয়।

তবে তার আগেই তাকে একই পদে রাখতে গভর্নর পদের মেয়াদ দুই বছর বাড়িয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার সংশোধনের কাজ শুরু হয়। এরপর তা সংসদে বিল আকারে পাস হয়। মাঝে কয়েকদিনের জন্য অভিভাবকহীন থাকে বাংলাদেশ ব্যাংক। শেষ পর্যন্ত বুধবার আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে আবারো অভিভাবক পেল বাংলাদেশ ব্যাংক।