সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২০ বছর বয়সী সোহাগ ‘মেডিসিন ও শিশু বিশেষজ্ঞ’!

৭:৩৮ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ১৮, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি- ঠাকুরগাঁও খোচাবাড়ীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কথিত ভুয়া ডাক্তার মোঃ সোহাগ ইসলাম বাবুকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ-আল- মামুন।

আজ শনিবার সদর থানার পুলিশ ফোর্সসহ কিসমত দৌলতপুর নিবাসী কথিত ডাঃ মোঃ সোহাগ ইসলাম বাবু (২০) এর চেম্বারে গিয়ে চ্যালেঞ্জ করলে তিনি স্বীকার করে নেন তিনি ডাক্তার নন (বিএমডিসির রেজিষ্ট্রেশনকৃত)। তাছাড়া তিনি তার ভিজিটিং কার্ডে উল্লেখ করা ডিপ্লোমা ডাক্তারও নন বলে স্বীকার করেন এবং তার নেই কোন ডিগ্রির সার্টিফিকেট।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরো কঠোরভাবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে ভয়ানক তথ্য এবং তার ব্যাগ থেকে বের হয় প্রেসক্রিপশনের অনেক সেট। সেখানে রোগের লক্ষণ বিবরণসহ কি ঔষধ দেয়া হবে তার তালিকা এবং এই তালিকা হচ্ছে তিনি যে ডাক্তারের সাথে কম্পাউন্ডার হিসেবে দিনাজপুরে কাজ করেছেন তার।

তাই করোনার সুযোগ নিয়ে ২০ বছর বয়সে হয়ে গেছেন ডায়বেটিস, মেডিসিন ও শিশু বিশেষজ্ঞ ।

ঘটনাস্থলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কথিত ডাক্তারকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।