• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় দেবরের লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল ভাবীর

৭:০১ অপরাহ্ন | বুধবার, জুলাই ২২, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় বাড়ির সীমানায় টিনের চালের পানি পড়া নিয়ে বিরোধে দেবরের লাঠির আঘাতে ভাবী মাজেদা বেগম (৫৫) খুন হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার নওদাবগা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মাজেদা বেগম সোনাতলা উপজেলার নওদাবগা গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী।

অভিযোগে জানা গেছে, বসতবাড়ির সীমানা নিয়ে ভ্যানচালক দুই ভাই মোফাজ্জল হোসেন ও তালেব হোসেনের পরিবারে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। সম্প্রতি স্থানীয়ভাবে তাদের বিরোধ নিষ্পত্তিও করা হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে মোফাজ্জল হোসেনের ঘরের বৃষ্টির চালের পানি তালেবের সীমানায় পড়ে। তখন তালেব, তার স্ত্রী ও ছেলে ফরহাদ ঘটনাস্থলে এসে মোফাজ্জল এবং স্ত্রী মাজেদাকে গালাগাল করেন।

মোফাজ্জল এর প্রতিবাদ করলে তালেব ও তার লোকজন তাকে মারপিট করতে থাকেন। তখন মাজেদা স্বামীকে রক্ষায় এগিয়ে এলে তালেব বাঁশের কারাল (খড় শুকানোর লাঠি) দিয়ে তার গলা ও বুকে আঘাত করেন। এতে মাটিতে লুটিয়ে পড়া মাজেদাকে সৈয়দ আহম্মদ কলেজ স্টেশনে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। ঘটনার পর পরই তালেব ও তার পরিবারের সদস্যরা পালিয়ে গেছেন।

সোনাতলা থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জাহিদ হোসেন জানান, নিহত মাজেদার মরদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বুধবার দুপুর পর্যন্ত মামলা হয়নি। হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।