সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাউফলে সরকারি পুকুর দখল করে যুবলীগ নেতার মাছ চাষ

৭:১৭ অপরাহ্ন | বুধবার, জুলাই ২২, ২০২০ বরিশাল
BAUPHAL PUKUR

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ধুলিয়া ইউনিয়নের সরকারী দুইটি পুকুর দখল করে মাছ চাষ করছেন আনিসুর রহমান জুয়েল নামের এক যুবলীগ নেতা।

স্থানীয় ইউনিয়ন ভূমি ও তহসিল অফিসের পাশেই অবস্থিত পুকুর দুইটি গত দশ বছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে যুবলীগ নেতা মাছ চাষ করলেও তহসিল অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কিছুই জানেনা বলে জানান।

অভিযোগ রয়েছে, যুবলীগ নেতা জুয়েলের সাথে ওই কর্মকর্তার গোপন চুক্তিতে মাছ চাষ হচ্ছে। এরফলে সরকার রাজস্ব হারাচ্ছেন। দলীয় সুত্রে জানা গেছে, আনিসুর রহমান জুয়েল ধুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলার ধুলিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস ও ধুলিয়া স্কুল এন্ড কলেজের সংলগ্ন সরকারি দুইটি পুকুর রয়েছে। সংশ্লিষ্ট কোন দপ্তরের কোন প্রকার অনুমতি বা লিজ না নিয়েই বিগত ১০ বছরের বেশি সময় ধরে মাছ চাষ করে আসছেন যুবলীগ নেতা আনিসুর রহমান জুয়েল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা জানান, প্রতি বছর পুকুর দুইটি থেকে প্রায় অর্ধলক্ষ টাকার মাছ বিক্রি করা হয়। সম্প্রতি  ওই পুকুর থেকে প্রায় ৪০ হাজার টাকার মাছ স্থানীয় এক মাছ ব্যবসায়ির কাছে বিক্রি করেছে যুবলীগ নেতা জুয়েল। দলীয় প্রভাব বিস্তার করে বছরের পর বছর ওই যুবলীগ নেতা অবৈধভাবে সরকারি পুকুর দখল করে মাছ চাষ করে আসলেও স্থানীয় তহসিল অফিসের কেহ বিষয়টা জেনেও না জানার ভান করছেন।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা আনিসুর রহমন জুয়েল পুকুর দখলের বিষয়ে অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, পুকুর দুইটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার কারণে পরিস্কার করে আমি মাছ চাষ করছি। সরকার প্রয়োজন মনে করলে নিয়ে যাবে।

ধুলিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তশিলদার মো. মিজানুর রহমান গোপন চুক্তির বিষয়ে অস্বিকার করে বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাউফল উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আনিচুর রহমান বালি বলেন, সরকারি লীজ ব্যতীত কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান মাছ চাষ করতে পারবেন না। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।