সংবাদ শিরোনাম

কারওয়ান বাজারে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ-সড়ক অবরোধচট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, গুলিতে ৪ শ্রমিকের মৃত্যুগাছে মোটরসাইকেলে ধাক্কা, ২ ক‌লেজ ছা‌ত্রের মৃত্যুহেফাজতিরা ধর্মকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় আসতে চায়: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে ককটেল হামলাশাহজাদপুরে থানা পুলিশের অভিযানে ইউপি সদস্যসহ ৯ জুয়াড়ি আটকখালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ফরিদপুরে দোয়াওবায়দুল কাদেরকে কোম্পানীগঞ্জে ঢুকতে না দেওয়ার ঘোষণা কাদের মির্জারকরোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন এমপি ফারুক চৌধুরীর মাফরিদপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে কলেজ শিক্ষার্থীর ওপর হামলা

  • আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রোগীর প্যাথলজি রিপোর্টে মৃত চিকিৎসকের স্বাক্ষর

২:২৫ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৩, ২০২০ দেশের খবর, বরিশাল

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক- বরিশালে মৃত চিকিৎসকের স্বাক্ষর ব্যবহার করে প্যাথলজি রিপোর্ট দেয়ায় এক ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দুই মালিককে ছয় মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

পাশাপাশি নামের শেষে ভুয়া পদবি ব্যবহার করায় এক চিকিৎসককে ছয় মাসের কারাদণ্ড এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি সিলগালা করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

নগরীর জর্ডন রোড এলাকার দি সেন্ট্রাল মেডিকেল সার্ভিসেস ডায়াগনস্টিক সেন্টারে বুধবার রাত ৮টার দিকে এ অভিযান চালানো হয়।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চিকিৎসক নূর এ সরোয়ার সৈকত এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক একে চৌধুরী ও জসীম উদ্দিন মিলন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মুবিনুল হক মুবিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেন্ট্রাল মেডিকেল সার্ভিসেসে র‌্যাব সদস্যদের নিয়ে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে দেখা যায় ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে মৃত চিকিৎসক গাজী আমানুল্লাহ খানের স্বাক্ষরে ২২ জুলাই তারিখে একটি প্যাথলজি রিপোর্ট দেয়া হয় খাদিজা নামে এক রোগীকে। কিন্তু ওই চিকিৎসক গত ১৯ জুলাই ঢাকায় মারা যান এবং তার আগে তিনি তিন মাস ধরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন।

এছাড়া, প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ডসহ বিভিন্ন জায়গায় করোনায় মৃত্যুবরণ করা চিকিৎসক ইমদাদ উল হকের নাম ব্যবহার করা হচ্ছিল। একই সাথে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নূর এ সরোয়ার সৈকত নামে একজন চিকিৎসক পাওয়া যায়। যিনি রোগীকে দেয়া ব্যবস্থাপত্রে নামের শেষে বেশ কিছু ভুয়া ডিগ্রি উল্লেখ করেন এবং শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের নাম ব্যবহার করেন।

এ পরিপ্রেক্ষিতে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দুই মালিক এবং ভুয়া ডিগ্রিধারী চিকিৎসককে ছয় মাস করে কারাদণ্ড দেয়া হয় এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি সিলগালা করা হয় বলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান।