• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জে দুইদিনে সাড়ে ৩৮ লাখ টাকার অবৈধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

৬:৫১ অপরাহ্ন | শুক্রবার, জুলাই ২৪, ২০২০ সিলেট
may

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জে গত দুইদিনে ৩৮ হাজার ৫শ’ মিটার কাথা জাল এবং ৫৪ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে পুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। যায় আনুমানিক মূল্য প্রায় ৩৮ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার জেলার বিভিন্ন উপজেলায় এ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা ও উপজেলা প্রশাসন।

হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, অবৈধ কারেন্ট জাল ও কাথা জাল ব্যবহার করে মৎস্য আহরণের বিরুদ্ধে বুধবার ও বৃহস্পতিবার অভিযান পরিচালনা করেন হবিগঞ্জ জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ ও জেলা মৎস্য অধিদপ্তর। বুধবার বিকেলে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা বাজারের কাছে হাওরে অবৈধ কাথা জাল দিয়ে মাছ শিকারের অভিযোগে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে প্রায় ৫ হাজার মিটার কাথা জাল/বেড় জাল জব্দ করে পোড়ানো হয়।

এছাড়া বৃহস্পতিবার মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসনূভা নাশতারানের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে প্রায় ৮ হাজার ৫শ’ মিটার অবৈধ বেড় জাল আটক করা হয়। নবীগঞ্জের ভুমি কমিশিনার সুমাইয়া মমিনের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত নবীগঞ্জ বাজার থেকে প্রায় ২৫ কেজি (আনুমানিক ১৩ হাজার মিটার) কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। এসময় একজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৭ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

বাহুবল উপজেলার এসিল্যান্ড খৃষ্টফার হিমেল রিছিলের নেতৃত্ব স্নানঘাট এলাকার হাওর থেকে প্রায় ৫ হাজার মিটার কাথা জাল ও ১ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে পুড়ানো হয়। অন্যদিকে, বানিয়াচং উপজেলার এসিল্যান্ড ইফফাত আরা জামান ঊর্মির নেতৃত্বে গন্ধর্বপুর গ্রামের হারুনিয়া হাওর থেকে প্রায় ২৫ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিছুর রহমান খানের নেতৃত্বে কালারডোবা ও লুকড়া ইউনিয়নের হাওর এলাকা থেকে প্রায় ২০ হাজার মিটার অবৈধ বেড়/কাথা জাল, ভেশাল জাল ও ১৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে পোড়ানো হয়।