‘ভবিষ্যতে মানুষ আমাকে খুব বেশি ভুল করতে দেখবে না’- সাকিব

১১:১৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুলাই ২৪, ২০২০ খেলা
sakib

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ চলতি বছরের ২৯ অক্টোবর সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। ক্রিকেটে ফেরার আগে নিজেকে ভালোভাবে প্রস্তুত করতে চান তিনি। তাই আগামী মাসেই অনুশীলনে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। ফিটনেস ও ফর্ম ফিরে ফিতে আগামী তিন মাস টানা অনুশীলন করবেন তিনি।

সম্প্রতি ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোতে দেয়া সাক্ষাৎকারে বাঁহাতি অলরাউন্ডার বলেন, ভবিষ্যতে মানুষ আমাকে খুব বেশি ভুল করতে দেখবে না। আমার জীবন অনেক বদলে গেছে। আমি এখন বিবাহিত ও আমার দুটো সন্তান আছে। আমার মেয়েরা আমার জীবনকে অনেক বদলে দিয়েছে।

যেদিন চলে গেছে তা নিয়ে না ভেবে সাকিব অতীত ভুলে গিয়ে সামনের দিনে খেলার মাঠে আরও দৃঢ়ভাবে ফিরে আসার বিষয়ে মনোযোগী হতে চান। ভালোভাবে ক্রিকেটে ফিরে আসাই তার সকল ভুলত্রুটি মুছে দেবে বলে বিশ্বাস করেন এ অলরাউন্ডার।

বর্তমানে পরিবার নিয়ে আমেরিকায় আছেন সাকিব। উইসকনসিনে দুই কন্যাকে নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটে তার। যুক্তরাষ্ট্রে থাকলেও দেশে নিয়মিত যোগাযোগ রেখেছেন তিনি। ক্রিকেট সতীর্থদের খোঁজখবরও পৌঁছে যায় তার কাছে।

গত বছর ২৯ অক্টোবর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত জাতীয় দলের তিনটি আন্তর্জাতিক সিরিজ মিস করেছেন সাকিব। ভারতে টি২০ ও টেস্ট সিরিজে, পাকিস্তানে টি২০ ও টেস্ট, দেশে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ হোম সিরিজ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন টেস্টের সিরিজ সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হলে খেলা হবে না তার। নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ পূর্ণ করে বিপিএল দিয়ে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফেরার সুযোগ পাবেন তিনি।

নভেম্বর-ডিসেম্বরে হতে পারে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক এ টি২০ টুর্নামেন্ট। কভিড-১৯ মহামারির কারণে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজ, আয়ারল্যান্ড সফর বঞ্চিত হতে হলো না সাকিবকে। টি২০ এশিয়া কাপ এবং টি২০ বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টও পিছিয়ে গেছে ২০২১ সালে। এদিক থেকে সৌভাগ্যবানই বলতে হবে সাকিবকে। ফিট থাকলে তার অংশগ্রহণেই ২০২৩ সাল পর্যন্ত টানা তিনটি বিশ্বকাপ খেলবে বাংলাদেশ।