সংবাদ শিরোনাম

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট নিয়ে যা বললেন চিকিৎসক২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেন কাদের মির্জাটাঙ্গাইলে ভন্ড পুরুষ কবিরাজ নারী সেজে যুবককে বিয়ে! অতঃপর…ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার ঢাকা ভ্রমণ!শেরপুরের সেই শিশু রোকনের পরিবারের পাশে ইউএনও!কক্সবাজারে অস্ত্রসহ ডাকাতি মামলার আসামি গ্রেফতারকক্সবাজারে অনুপ্রবেশকারীর পক্ষ না নেয়ায়, আ’লীগ সভাপতিকে অব্যাহতি!শাহজাদপুরে ট্যাংকলরি সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১রমজান মাসে আলেমদের হয়রানি মেনে নেয়া যায় না: নুরুল ইসলাম জিহাদীখালেদা জিয়াকে পাকিস্তান-জাপান দূতের চিঠি

  • আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কিশোরগঞ্জে ভুয়া বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকসহ ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

৭:০৫ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ২৫, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

এ. এম. উবায়েদ, নিজস্ব প্রতিবেদক-  কিশোরগঞ্জের ভৈরবে এক ভুয়া চিকিৎসকসহ ৪ প্রতিষ্ঠানকে ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ শনিবার বিকালে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রী খীসা পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত এই জরিমানা করেন। ভুয়া চিকিৎসকের নাম আবুল কালাম আজাদ ওরফে এ.কে আজাদ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রী খীসা জানান, ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কিশোরগঞ্জের একটি টিমকে সাথে তিনি শহরের আইস কোং বেকারি, ফুলকলি, রিয়াজ ফার্মেসী ও মোস্তফা ফার্মেসীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে পঁচা ডিম থাকার অভিযোগে বঙ্গবন্ধু সরণির আইস কোং মোড়ের আইস কোং বেকারিকে ১০ হাজার, মাইকপট্টির ফুলকলি বেকারিতে অনুমোদনহীন কোং পণ্য থাকার দায়ে ২০ হাজার, সরকারি কেবি পাইলট হাইস্কুলের সামনের রিয়াজ ফার্মেসীতে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখার দায়ে ৫ হাজার এবং পৌরসভার সামনের মোস্তফা ফার্মেসীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানে মোস্তফা ফার্মেসীতে বসে এলএমএফ (পল্লী চিকিৎসক) ট্রেনিংপ্রাপ্ত আবুল কালাম আজাদ ওরফে এ.কে আজাদ নামের এক ব্যক্তি ফার্মেসীর দেয়ালে চর্ম, যৌন, এলার্জি, মাও শিশুসহ সকল রোগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দাবি করে রোগী ভিজিট করার অভিযোগে আটক করা হয়।

এ সময় তিনি দায় স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করলে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা অনাদায়ে দুইমাসের জেল প্রদান করেন। পরে তিনি জরিমানার টাকা পরিশোধ করে অব্যাহতি নেন। এই রকম অভিযান আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে বলেও জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

অভিযানে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কিশোরগঞ্জের সহকারী পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বণিক, ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক মো: রুহুল আমিন, পৌর স্বাস্থ্য পরিদর্শক নাছিমা বেগম, ভৈরব ঔষধ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি চন্দন কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আক্রাম হোসেন চৌধুরী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কিশোরগঞ্জের সহকারি পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বণিক জানান, অভিযানে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলিকে সংশোধনের জন্য এক মাস করে সময় দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে একই অপরাধের সাথে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে আরও কঠোর শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।