সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হিন্দু চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মুসলিম নারী ধর্ষণের অভিযোগ!

◷ ১১:৫৭ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, জুলাই ২৬, ২০২০ সিলেট
syla

সিলেট প্রতিনিধি: সিলেটের গোয়াইনঘাটে এক হিন্দু পল্লী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মুসলিম নারী ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের দেড়মাসে হলেও ধর্ষিতার অভিযোগ আমলে নেয়নি থানা পুলিশ। দেড় মাস থেকে ন্যায় বিচারের আশায় পুলিশের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বিচার না পেয়ে তিনি সিলেটের পুলিশ সুপারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই ধর্ষিতা নারী।

রোববার ২৬ জুলাই গোয়াইনঘাট উপজেলার বলেশ্বর গ্রামের বাসিন্দা ওই ধর্ষিতা নারী পল্লী চিকিৎসক অনিল সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানা গেছে, গত ১৪ জুন রাত ১০টার দিকে তার স্বামী বাইরে গেলে ধর্ষক পল্লী চিকিৎসক অনিল সরকার সুকৌশলে তার বসত ঘরে ঢুকে। ঘুমিয়ে থাকা শিশু সন্তানকে হত্যার ভয় দেখিয়ে ওই মহিলাকে ধর্ষণ করে। তখন তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ধর্ষক অনিল সরকারকে হাতে নাতে ধরে ফেলেন। এরপর এলাকার ব্যক্তিবর্গ এসে বিচারের আশ্বাস দিয়ে অনিল সরকারকে জনতার হাত থেকে নিয়ে যায়। অনিল সরকার প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেননি। এরপর গত ১৮ জুন তিনি গোয়াইনঘাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ দায়েরের ১ মাস ৮ দিন অতিবাহিত হলেও অভিযোগ আমলে নেয়নি পুলিশ। ন্যায় বিচারের আশায় বারবার পুলিশের দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও কোন বিচার না পেয়ে অবশেষে তিনি সিলেটের পুলিশ সুপার বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার ওসি আব্দুল আহাদ জানান, এ ব্যাপারে তিনি খোঁজ খবর নিয়ে দেখছেন।