১২ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বগুড়ায় ব্যাংক ম্যানেজার গ্রেফতার

◷ ৯:১৭ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, জুলাই ২৯, ২০২০ রাজশাহী
arman

বগুড়া প্রতিনিধি: গ্রাহকের ১২ কোটি ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে যমুনা ব্যাংক বগুড়া শাখার ম্যানেজার সওগাত আরমানকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ২৯ জুলাই বুধবার সকালে দুদক বগুড়া জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের কর্মকর্তারা তাকে গ্রেফতার করে নিজেদের হেফাজতে নেন।

জানা গেছে, সওগাত আরমান যমুনা ব্যাংক বগুড়া শাখায় ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত থাকাকালে বিভিন্ন সময় জালিয়াতির মাধ্যমে অন্য একটি একাউন্টে ১২ কোটি ১৬ লাখ টাকা স্থানান্তর করেন। পরে আবার সেই টাকা নিজের একাউন্টে স্থানান্তর করে আত্মসাত করেন।

দুদক সমন্বিত বগুড়া জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, স্থানীয়ভাবে অভিযোগের প্রেক্ষিতে দীর্ঘদিন অনুসন্ধান করা হয়। অনুসন্ধানে ম্যানেজার সওগাত আরমানের টাকা আত্মসাতে জড়িত থাকার সত্যতা পাওয়া যায়। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে বগুড়া শহরের বড়গোলা এলাকায় যমুনা ব্যাংকের শাখায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে বগুড়া সদর থানা হেফাজতে রাখা হয়।

গ্রেফতারকৃত ব্যাংক ম্যানেজার সওগাত আরমান রংপুর জেলা সদরের কামালকাসনা এলাকার মোহতাছিম বিল্লাহর ছেলে। তিনি ২০১৭ সালের ১১ অক্টোবর যমুনা ব্যাংকের বগুড়া শাখায় যোগ দেন বলে জানা যায়।

দুর্নীতি দমন কমিশন বগুড়ার আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়ার পর প্রাথমিক অনুসন্ধানে অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। পরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে ব্যাংকের সাবেক ম্যানেজার (বর্তমানে ঢাকায় সংযুক্ত) সওগাত আরমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দুদক বগুড়া কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন আইনের ৪০৯ ও ৪২০ ধারায় মামলা দায়ের করেন। আত্মসাৎ করা টাকা গ্রাহকদের বলে তিনি জানান।