🕓 সংবাদ শিরোনাম

করোনা ও উপসর্গে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে মৃত্যু ৯হিলিতে বেড়েছে কাঁচামরিচের ঝাঁজ, বিপাকে সাধারণ ক্রেতাএসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার সময় জানালেন শিক্ষামন্ত্রীঅন্যের পাসপোর্টে ভ্যাকসিন, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি যুবকের ৯ মাস কারাদণ্ডরংপুরে আসামির ছুরিকাঘাতে এএসআই নিহতআফগানিস্তানে অপরাধীদের হাত-পা কেটে দেওয়ার শাস্তি ফিরছে: তালিবান নেতাহুয়াওয়ে মালিকের মেয়েকে মুক্তির বদলে দুই কানাডিয়ানকে ছেড়ে দিলো চীনজাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের দিন আজইলিশ রফতানি: বাংলাদেশের নতুন শর্তে আশাভঙ্গের শঙ্কায় ভারতনোয়াখালীতে মুরগি নিয়ে মারামারিতে প্রাণ গেল বৃদ্ধের, গ্রেফতার ২

  • আজ শনিবার, ১০ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

করোনা কেড়ে নিল আরও ৫ হাজার ৪শ’ মানুষের প্রাণ

coo
❏ রবিবার, আগস্ট ২, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মহামারী প্রতিরোধে জারি করা কঠোর বিধি-নিষেধগুলো শিথিল করা হয়েছে দেশে দেশে। এতে ভাইরাসটির বিস্তার আবারো প্রকোট আকার ধারণ করেছে। প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড হচ্ছে আক্রান্তের সংখ্যায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫ হাজার ৪শ’ মানুষের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনাভাইরাস। নতুন প্রায় আড়াই লাখ সংক্রমণ শনাক্তে, বিশ্বজুড়ে কোভিড নাইনটিনে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো ১ কোটি ৮০ লাখ। মোট প্রাণহানি ৬ লাখ ৮৮ হাজার।

শুক্রবার দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। মারা গেছেন প্রায় ১১শ’ মানুষ। দেশটি মোট প্রাণহানি ১ লাখ ৫৮ হাজারের মতো। ৬০ হাজার নতুন সংক্রমণ শনাক্তে, আক্রান্ত ৪৭ লাখ ৬৪ হাজার।

একদিনে আরও ১ হাজার মৃত্যু দেখেছে ব্রাজিল; দেশটিতে মৃতের সংখ্যা সাড়ে ৯৩ হাজারের বেশি। আক্রান্ত ২৭ লাখের বেশি। মেক্সিকোতে প্রাণহানি ৪৮ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্ত সোয়া ৪ লাখ। সাড়ে ৮শ’র বেশি প্রাণহানি রেকর্ডে, মৃত্যু সাড়ে ৩৭ হাজার। ৫৫ হাজার সংক্রমণ শনাক্তের পর, দেশটিতে মোট আক্রান্ত সাড়ে ১৭ লাখের বেশি।এদিন সোয়া ২শ’ করে মৃত্যু রেকর্ড করেছে কলম্বিয়া-ইরান।

বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে সচেতন না হওয়ায় করোনা মহামারির প্রভাব ভবিষ্যতে অনেক বছর পর্যন্ত থেকে যেতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসিস। শুক্রবার (৩১ জুলাই) সংস্থার জরুরি কমিটির এক বৈঠকে তিনি এমন আভাস দিয়েছেন।

হু প্রধান বলেন, ‘৬ মাস আগে যখন আমাকে পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি ঘোষণা করতে বলা হয়েছিল, তখন আক্রান্ত ছিলেন ১০০ জনেরও কম, চীনের বাইরে কারও মৃত্যু হয়নি। এই মহামারী শতাব্দীতে একবার হয়। এর প্রভাব থাকবে অন্তত কয়েক দশক ধরে।’

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন