পুলিশের ভয়ে মাদকসেবীর নদীতে ঝাঁপ, একদিন পর মৃতদেহ উদ্ধার

kort

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার মহাস্থানে পুলিশের ভয়ে করতোয়া নদীতে ঝাঁপ দেয়া যুবক মোস্তাফিজার রহমান মাসুমের (৩৫) মৃতদেহ একদিন পর ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেছে। ৩ আগস্ট সোমবার দুপুরে স্থানীয় লোকজন মৃতদেহটি উদ্ধার করলে বিকেলে পুলিশ এসে মর্গে পাঠায়। নিহত মাসুম মহাস্থান গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রোববার বিকেল ৬টায় মহাস্থান প্রতাবাজু গ্রামে সাদা পোশাকে মাদকবিরোধী অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় মোস্তাফিজার রহমান মাসুম পুলিশ দেখে ভয়ে দৌড় দেন। পুলিশও তাকে তাড়া করে। একপর্যায়ে মাসুম করতোয়া নদীতে ঝাঁপ দেন।

পরে এলাকাবাসী তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে শিবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টার উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তারাও তাকে না পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়।

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের শিবগঞ্জ স্টেশন কর্মকর্তা আব্দুল হামিদুল বলেন, খবর পেয়ে একটি ফায়ার সার্ভিসের দল ঘটনাস্থলে অনেক খোঁজাখুঁজি করেছে। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান বলেন, মহাস্থানে রোববার সন্ধ্যার আগে মাদকসহ কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ। সেখানে পুলিশ দেখে মাসুম নামের এক মাদকসেবী দৌড় দিয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে শুনেছি।

হৃদয়বিদারক এ ঘটনায় মাসুমের পরিবারসহ এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter