সংবাদ শিরোনাম

ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়, ত্যাগের মহিমায় জীবন সাজান: কাদেরআল্লাহ’র সঙ্গে শিরক, নিষিদ্ধ হলো তুরস্কের বিখ্যাত ‘ইভিল আই’ তাবিজক্ষমা চাইলেন এমপি একরামুলএবার এসএসসি-এইচএসসিতে অটোপাস সম্ভব নয়: শিক্ষামন্ত্রীবাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দনসৈয়দপুর-রংপুর মহাসড়ক থেকে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধারনন্দীগ্রামে আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতারশাহজাদপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তাদের অর্থায়নে পাকা ঘর পাচ্ছে প্রতিবন্ধী দম্পতিবাংলাদেশে পরীক্ষা চালানোর জন্য ২০ লাখ টিকা দিয়েছে ভারত: রিজভীফরিদপুরের ভাঙ্গায় ট্রাক-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষ: ২ স্কুলছাত্র নিহত

  • আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সেই রায়হান কবিরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাবে মালয়েশিয়া

◷ ৮:৩১ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, আগস্ট ৫, ২০২০ আলোচিত
raihan

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা মহামারীতে অভিবাসীদের দুর্দশা নিয়ে আল জাজিরাকে সাক্ষাৎকার দিয়ে গ্রেফতার হওয়া বাংলাদেশি অভিবাসী রায়হান কবিরকে ৩১ আগস্ট ফেরত পাঠাবে মালয়েশিয়া। দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষের মহা-পরিচালক ইন্দেরা খাইরুল জাইমি দাউদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার পুত্রজয়ায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, বর্তমানে রয়েল পুলিশ রায়হানের মামলাটি তদন্ত করছেন তদন্ত শেষ হলে তদন্তের রিপোর্ট এ্যাটর্নি জেনারেল এর কাছে জমা দেওয়ার পর আদালতের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে তার নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। ইতোমধ্যে বাতিল করা হয়েছে তার ওয়ার্ক পারমিট ভিসা এবং তিনি আর কখনই মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিকরা রায়হান কবিরকে কবে নাগাদ দেশে পাঠানো হবে এই বিষয়ে প্রশ্ন করলে ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক নির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানান নি। তবে, তিনি জানিয়েছেন ৩১ আগষ্টের পর কুয়ালালামপুর-ঢাকা ফ্লাইট পরিচালনা করা হতে পারে। তখন এই বিষয়ে নির্দিষ্টভাবে বলা যাবে।

এর আগে তদন্তের স্বার্থে রায়হানকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়। চলতি লকডাউনে মালয়েশিয়ার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সে দেশে বসবাসরত অভিবাসীদের প্রতি বৈষম্যমূলক ও বর্ণবাদী আচরণ করেছে বলে আলজাজিরা টেলিভিশনকে জানিয়েছেন রায়হান কবির (২৫)।

‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়াস লকডাউন’ শিরোনামে ২৫ মিনিটের ডকুমেন্টারিটি আলজাজিরা টেলিভিশনে ৩ জুলাই প্রচারিত হলে মালয়েশিয়াজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। ওই অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রচারিত হওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রতিবেদনটিকে ‘ভিত্তিহীন ও মিথ্যাচার’ বলে অভিহিত করে।

পরে পুলিশ ও ইমিগ্রেশন স্পেশাল ব্রাঞ্চ কুয়ালালামপুরের একটি কনডোমোনিয়ামে অভিযান চালিয়ে রায়হানকে গ্রেফতার করে।