• আজ রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২৮ নভেম্বর, ২০২১ ৷

‘বৈরুত বিস্ফোরণে ইসরায়েল জড়িত থাকতে পারে’- ইরাকি এমপি

iraq
❏ বুধবার, আগস্ট ৫, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পেছনে ইসরাইলের হাত থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন ইরাকের সংসদের প্রভাবশালী সদস্য মুহাম্মাদ আল বালদাওয়ি। বুধবার আল-মা’লুমা সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি এটা নিছক একটা দুর্ঘটনা নয়, এর পেছনে কারো না কারো হাত রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, এটা ঠিক যে এই ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ উদঘাটনের তদন্ত শেষ করতে অনেক সময় লাগবে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে মনে হচ্ছে এর সঙ্গে ইসরায়েল জড়িত রয়েছে।

ইরাকের এই সংসদ সদস্য বলেন, ইসরায়েল এ ধরনের জঘন্য কাজ করে অভ্যস্ত। তারা নিরপরাধ মানুষ মেরে আনন্দ পায়। অতীতে ভিন্ন দেশে এ ধরণের অনেক ঘটনাই ইসরায়েল ঘটিয়েছে। তারা ১৯৮১ সালে ইরাকের শান্তিপূর্ণ পরমাণু স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে এবং গত বছরও ইরাকের সামরিক বাহিনী হাশ্‌দ আশ শাবির অস্ত্র গুদামে হামলা করেছে।

এছাড়া পরমাণু বিশেষজ্ঞদের মতো ব্যক্তিত্বদের হত্যার মতো জঘন্য কাজও ইসরায়েল এর আগে করেছে। মুহাম্মাদ আল বালদাওয়ি বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ইসরায়েলকে এ জন্য অভিযুক্ত করা যেতে পারে।

অবশ্য ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, বৈরুতে বিস্ফোরণের সঙ্গে তারা জড়িত নন।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বৈরুত বন্দরে একটি বিস্ফোরক দ্রব্যের গুদামের ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটে। এরইমধ্যে মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গেছে। আহত হয়েছে চার হাজারের বেশি মানুষ। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। লেবাননের শীর্ষ প্রতিরক্ষা পরিষদ বৈরুতকে দুর্যোগ কবলিত শহর বলে ঘোষণা করেছে।

এ বিস্ফোরণের পর শহরটিতে দুই সপ্তাহের জন্য রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন এই জরুরি জারি ঘোষণা করেন। বিস্ফোরণের পর লেবাননের সর্বোচ্চ প্রতিরক্ষা পরিষদ প্রেসিডেন্ট মিশেল আউনের নেতৃত্বে জরুরি বৈঠকে বসে। বৈঠক শেষে এক বিবৃতির মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন এবং ১০ হাজার কোটি লেবাননি পাউন্ড সাহায্য হিসেবে বরাদ্দ দিয়েছেন।

লেবাননের সর্বোচ্চ প্রতিরক্ষা পরিষদ একটি কমিটি তদন্ত গঠন করেছে। এ কমিটি আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করবে। তদন্তে যারা দোষী সাব্যস্ত হবেন তাদেরকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

সুত্রঃ পার্সটুডে