সংবাদ শিরোনাম
‘করোনা মোকাবিলায় অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ সফল’- তথ্যমন্ত্রী | ভিসার মেয়াদ বাড়াতে রাজি সৌদি আরব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে, দুই যুবকের বিরুদ্ধে মামলা | টাঙ্গাইল ঘারিন্দা ইউপি উপনির্বাচন: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন আ’লীগ প্রার্থী তোফায়েল | ‘মালেকের বিরুদ্ধে সব অভিযোগের দায় তার ব্যক্তিগত’ | ময়মনসিংহে জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার | একে একে ১২টি বিয়ে, মাইক্রো চালক স্বামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান স্ত্রীরা | এবার ড্রাইভার মালেকের ‘রাজকীয় দরজা’ ভাইরাল | সৌদি প্রবাসীদের কাছে সোমবার পর্যন্ত সময় চেয়েছেন প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী | রাতে ভোট হওয়ার কোনো সুযোগ নেই: সিইসি |
  • আজ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘ভারতীয় শহীদদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করছে বাংলাদেশ’- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

৪:২০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৬, ২০২০ জাতীয়
mukti

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ “স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতীয় মিত্র বাহিনীর শহীদ সদস্যদের অবদান স্মরণে বাংলাদেশ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে তিনি এ কথা জানান। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে বাংলাদেশের সাথে ভারতের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে বলেন দু’জন আশা প্রকাশ করেন। মন্ত্রী মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সরকার এবং জনগণের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন।

ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক পরীক্ষিত। দু’দেশের সম্পর্ক অবনতি করার জন্য কেউ কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা চালায়। কিন্তু বাংলাদেশ -ভারত সম্পর্ক এতো হালকা নয়। গত কয়েক বছরে দু’দেশের মধ্যে অনেক কাজ হয়েছে। ছিটমহল সমস্যা, সমুদ্র সীমানা বিরোধ সমাধান হয়েছে। দু’দেশ উন্নয়ন অংশীদার হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

ভারতীয় হাইকমিশনার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ণ উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধের উপর লিখিত বইয়ের হিন্দিতে অনুবাদ করার জন্য অনুরোধ করেন। এছাড়া ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশের জনগণের আনন্দের অংশীদার হতে ভারত ইচ্ছুক বলে তিনি জানান। মন্ত্রী রীভা গাঙ্গুলির ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে পরবর্তী পদায়নের জন্য অভিনন্দন এবং শুভকামনা জানান।