সংবাদ শিরোনাম

লালমনিরহাটে তিস্তা নদী পুনরুদ্ধার ও তিন বিঘা এক্সপ্রেস চালুর দাবিতে মানববন্ধনটাঙ্গাইলে আ’লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী মতবিনিময় সভাসুপেয় পানির চাহিদা মেটাতে সুন্দরবনে ৮৮টি পুকুর পুনঃখনন করা হচ্ছে‘বিএনপির প্রার্থীরা সকালে বলে ভোট সুষ্ঠু, সন্ধ্যায় বলে কারচুপি হয়েছে’মুই মরলে লাশ দাফন করার কাও নাই: রমিচা বেওয়াপাবনার ফরিদপুরে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে  হত্যামাস না যেতেই উঠে যাচ্ছে বাউফলে সড়কের কার্পেটিংতিস্তা সেচ প্রকল্পের পরিধি বাড়াতে ১৫শ কোটি টাকার উদ্যোগপ্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অপহরণ, দুই সপ্তাহেও উদ্ধার হয়নি কলেজছাত্রীগায়ের জোরে ভোট কেন্দ্র ক্ষমতাসীনদের দখলে: বিএনপি

  • আজ ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মাগুরায় ক্ষেতে বিষ দিয়ে হাঁস মারাকে কেন্দ্র করে মারামারি, ভাঙচুর: পুলিশের গুলি

◷ ১০:২০ পূর্বাহ্ন ৷ শুক্রবার, আগস্ট ৭, ২০২০ খুলনা, দেশের খবর
bce869

মতিন রহমান, মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরা সদর উপজেলার বেরইল পলিতা ইউনিয়নের বড়জোকা-মনিরামপুর গ্রামে বেগুন ক্ষেতে বিষ দিয়ে হাঁস মুরগি মারাকে কেন্দ্র করে ও সামাজিক দুই দলের পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মারামারি ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগষ্ট) রাত ৮টার দিকে মনিরামপুর বাজারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মহব্বত আলী সমর্থকের সঙ্গে সাবেক মাগুরা সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এনামুল হক রাজা সমর্থকরা এই মারামারি করে। এসময় ১টি বসতবাড়িসহ মনিরামপুর বাজারের ৫টি দোকান ভাঙচুর করা হয়।

স্থানীয়রা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় , বৃহস্পতিবার সকালে মনিরামপুর গ্রামের নাজমুল শেখ (২৮) তার বেগুন চাষের জমিতে পোকামাকড় মারার জন্য কীটনাশক বিষ প্রয়োগ করে। পরে ওই জমিতে একই গ্রামের জহুর শেখের (৫০) বাড়ির হাঁস-মুরগি গেলে বিষের কারণে কয়েকটি হাঁস ও মুরগি মারা যায়। এসময় দুই পরিবারের মাঝে এই ঘটনা নিয়ে তর্কাতর্কি হয়। পরে সন্ধ্যার সময় তারা বাজারে আসলে ওই একই ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হলে শুরু হয় মারামারি।

এসময় নাজমুলের লোকসহ স্থানীয় রব্বানী মেম্বার ও রাজা গ্রুপের সমর্থকরা বিরোধী পক্ষ জহুর শেখসহ স্থানীয় আলফাজ মাতবব্বর ও চেয়ারম্যান মহব্বত আলীর সমর্থকদের দোকানপাট ও বাড়িঘর ভাঙচুর করে বলে জানা যায়। পরে মূর্হুতের মধ্যে দুপক্ষের লোকজন বাজারের মধ্যে ঢাল সড়কি ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘাতে জড়িয়ে পড়লে রাজার সমর্থকরা দোকানপাট ও বাড়িঘরে ভাঙচুর চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এসময় নূর ইসলাম নামে এক ব্যাক্তিকে মেরে গুরুতর আহত করে তারা।

এসব ঘটনার ব্যাপারে মাগুরার শত্রুজিৎপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইন্সপেক্টর বিশারুল ইসলাম জানান, উক্ত ঘটনায় পরিস্থিতি ভয়াবহতার দিকে গেলে পুলিশ ১৫ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

ইন্সপেক্টর বিশারুল আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে মারামারির সরঞ্জামাদি উদ্ধার করাসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। পরবর্তী সংঘাত এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান তিনি।