🕓 সংবাদ শিরোনাম

চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভাপটুয়াখালীতে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী গ্রেপ্তার

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

দিনাজপুরে নতুন করে ৫৭ জনসহ করোনায় আক্রান্ত ২০৩৭ জন, মৃত্যু ৪২ জনের


❏ শনিবার, আগস্ট ৮, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

শাহ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকে- দিনাজপুরে আশঙ্কাজনক হারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। সেই সাথে বাড়ছে করোনায় মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৫৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত সংখ্যা ২০৩৭ জন।

এরমধ্যে আজ ৩২ জনসহ এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ্য হয়েছে ১৪০০ জন। করোনায় জেলায় সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪২ জনের। আর করোনা উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ৩১ জনের।

এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। কিন্তু, তারপরও মানুষ মানছে না স্বাস্থ্যবিধি। মাস্ক পরিধান এবং সামাজিক দুরত্ব মেনে চলছে না জেলার ৯৫ শতাংশ মানুষ। সচেতনতার অভাব মারাত্মকভাবে পরিলক্ষিত হচ্ছে। অনেক শিক্ষিত মানুষও সচেতন নয়, স্বাস্থ্যবিধি মানার। শহরে কেউ কেউ তা মানলেও পাড়া-মহল্লা এবং বস্তি এলাকাগুলোতে অধিকাংশ মানুষেই মানছে না স্বাস্থ্যবিধি। গ্রামাঞ্চলে এ অবস্থা আরও করুন। স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই, সেখানে।

প্রয়োজনে শহরে বা বাইরে বের হলে কেউ কেউ মাস্ক সংগে রাখলেও তা পরিধান করে না। পকেটে রাখে। কেউ আবার কানে, মাথায় আটকিয়ে বা থুতনিতে রাখে ঝুলিয়ে। হাট, বাজারগুলোতে আরও বেহাল অবস্থা। ক্রেতা-বিক্রেতারা অধিকাংশই মানছে না স্বাস্থ্যবিধি।

বিশেষ করে জেলা সদরে করোনা আক্রান্ত সংখ্যা বাড়ছে আশংকাজনক হারে। এনিয়ে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। ২৪ ঘন্টায় জেলায় ৫৭ জন করোনায় আক্রান্তর মধ্যে সদরে আক্রান্ত ২০ জন। বৃহস্পতিবার ৫১ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্তের মধ্যে সদরেই ছিলো ৩৬ জন। বুধবার জেলায় করোনায় ৬৫ জন আক্রান্তর মধ্যে ২৮ জন ছিলো সদরের। মংগলবার ৭৭ জন আক্রান্তর মধ্যে২৫ জন সদরের ছিল।

সোমবার নতুন আক্রান্ত ৪৩ জনের মধ্যে ৪০ জনেই ছিল সদরের। রোববার ১৯ জন করোনায় আক্রান্ত সনাক্তর মধ্যে ১৮ জনই ছিল সদরে।১৩টি উপজেলা নিয়ে দিনাজপুর জেলা। এ পর্যন্ত জেলার ১৩ টি উপজেলায় ২০৩৭ করোনা আক্রান্তর মধ্যে সদরেই আক্রান্ত ৯০৩ জন। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় ৪২জন মৃত’র মধ্যে সদরেই মৃতের সংখ্যা ১২ জন। করোনা উপসর্গ নিয়ে জেলায় যে ৩১জনের মৃত্যু হয়েছে তার মধ্যে সদরেই মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের।

সিভিল সার্জন ডা.আব্দুল কুদ্দুসকে জানান, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ২৪ ঘন্টায় ১৩৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হলে ৫৭টি রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এরমধ্যে দিনাজপুরের সদরে ২০ জন, বিরামপুরে ১৪ জন, বীরগঞ্জে ৮ জন, বিরলে ৫জন, কাহারোলে ৫ জন এবং চিরিরবন্দরে ৪ রয়েছে।

আজ শুক্রবার দিনাজপুর জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের স্টাফ মো.শাহজাহান আলী (৪৫), বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর স্বাস্থ্যকর্মী মনিরা আক্তার (৩০), ওমর ফারুক (৩৩), বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর স্বাস্থ্যকর্মী মোস্তাকিমা (২২), বীরগঞ্জে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি উলসাদ জাহান (২৯), বীরগঞ্জ উপজেলার অগ্রণী ব্যাংক এর স্টাফ আতিকুর রহমান (৩১), কাহারোল উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান আবেদ আলী (৪৭) কাহারোল উপজেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা ডা.লুতফর রহমান (৪৭), অরুন কুমার (৫৪) করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।