বিশ্বে একদিনেই ৬ হাজারের বেশি মৃত্যু, মোট প্রাণহানি ৭ লাখ ২৪ হাজার

১২:৩৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, আগস্ট ৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
corona

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনায় বিপর্যস্ত সারা বিশ্ব। বৈশ্বিক মহামারীতে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ কোটি ৯৫ লাখ ৪৫ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭ লাখ ২৪ হাজার।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

এ পর্যন্ত পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ২৪ হাজার ৮১ জনের। গতকাল থেকে আজ সকাল পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৩৯৪ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৯৫ লাখ ৪৫ হাজার ৩২৬ জনে। ২৪ ঘণ্টায় ২ লাখ ৮৭ হাজার ৬৭৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্তদের মধ্যে মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ২৫ লাখ ৪৫ হাজার ৬২৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৮৭ হাজার ৯৭৪ জন।

গত এক দিনের সর্বোচ্চ ১২শ’ ৭১ জনের মৃত্যু দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মোট প্রাণহানি ১ লাখ ৬৪ হাজার ছাড়িয়েছে। এদিকে কাছাকাছি সংখ্যক মৃত্যু দেখেছে ব্রাজিলও। ১ হাজার ৫৮ জনের মৃত্যুর পর দেশটিতে মোট প্রাণহানি এখন ১ লাখ ছুঁইছুঁই।

মৃতের সংখ্যায় ব্রাজিলের পরেই আছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫১ হাজার ৩১১ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৬৯ হাজার ৪০৭ জন।

করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত। দেশটিতে করোনায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২০ লাখ ৮৮ হাজার ৬১১ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪২ হাজার ৫৭৮ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ৮ লাখ ৭৭ হাজার ১৩৫ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১৪ হাজার ৭২৫ জন।

মৃত্যুর দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ০৯ হাজার ৫ জন। এছাড়া মোট মৃতের সংখ্যা ৪৬ হাজার ৫১১ জন।

এদিকে বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগীশনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। ২৫ মার্চ প্রথমবারের মতো রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) জানায়, বাংলাদেশে সীমিত পরিসরে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন বা সামাজিকভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হচ্ছে। এ পর্যন্ত দেশে মোট করোনা শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৫২ হাজার ৫০২ জন। এছাড়া মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৩৩৩ জন।