ভারতে বিমান দুর্ঘটনা: দুই পাইলটসহ ২০ জনের মৃত্যু

১২:৪৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, আগস্ট ৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ind

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের কেরালার কোঝিকোডে ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার মুখে দুই টুকরো হয়ে যায় এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বিমান। দুবাই ফেরত এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের আইএক্স ১৩৪৪ বিমান কোঝিকোড বন্দরে অবতরণের সময় প্রবল বৃষ্টিতে রানওয়েতে পিছলে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দুই পাইলটসহ ২০ জন নিহত হয়েছেন।

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতেই উদ্ধারকাজ শেষ হয়েছে। মৃতদের মধ্যে আছে চার শিশুও রয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ১২৩ জন। এর মধ্যে ১২ জনের অবস্থা গুরুতর।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের বাংলা সংস্করণের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রবল বৃষ্টির কারণে রানওয়েতে অবতরণের সময় পিছলে যায় বিমানটি। দুর্ঘটনাস্থলে ধোঁয়া দেখতে পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনের বলা হয়েছে, শুক্রবার রাত সোয়া ৮টার কেরালার কোঝিকোড় বিমানবন্দরে রানওয়েতে ল্যান্ড করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। অবতরণের সময় রানওয়েতে পিছলে গিয়ে একটি খাদে পড়ে যায় বিমানটি।

ভারতীয় টিভি চ্যানেল এনডিটিডি জানিয়েছে, এদিন দুপুরে দুবাই থেকে বিমান কেরালার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে। কেরালার কোঝিকোড বিমান বন্দরে রানওয়েতে ছিটকে পড়ে। ওই অঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাতের মধ্যেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

টুইটারে দেওয়া পোস্টে ভারতের বেসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি জানিয়েছেন, এ ঘটনা তদন্তে ইতোমধ্যে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

দুই বার প্লেন ল্যান্ড করতে গিয়ে পাইলট ব্যর্থ হন বলে জানা গেছে। বেসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি জানান, বৃষ্টির মধ্যে পিছলে যায় বিমানটি। বিমানবন্দরের দেয়াল ভেঙে সেটি ৩৫ ফুট এগিয়ে যায়। বিমানটি দুই টুকরো হয়ে গেছে।

কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেছেন, পুলিশ ও দমকল বাহিনীকে প্রয়োজনীয় যাবতীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। যাতে উদ্ধারকাজ ঠিকভাবে হয় ও সুচিকিৎসার বন্দোবস্ত হয়, সেদিকে খেয়াল রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক দিন ধরে ভারতের কেরালায় ভারী বৃষ্টিপাত চলছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কেরালার ইদুক্কি জেলায় চা শ্রমিকদের একটি কলোনিতে ভারী বৃষ্টিপাতের পর ব্যাপক ভূমি ধসে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়। ওই ঘটনায় আরও অন্তত ৫০ জন আটকা পড়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।