সংবাদ শিরোনাম

যশোরের শার্শায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে গৃহবধুর মৃত্যুকাদের মির্জাকে পাবনা পাঠাতে সরকারকে অনুরোধ করলেন নিক্সন চৌধুরীরংপুরে হিন্দুপল্লিতে তান্ডবের ঘটনায় ৬ আসামি কারাগারেবাউফলে সড়কে অবৈধ উল্কা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধনকরোনা ভ্যাকসিন নিবন্ধনের অ্যাপস প্রস্তুতপৌর নির্বাচন সুষ্ঠু-শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক হয়েছে: তথ্যমন্ত্রীখালেদা জিয়ার মায়ের ১৩তম মৃত্যু বার্ষিকী পালনকরোনায় আক্রান্ত হাসানুল হক ইনু, হাসপাতালে ভর্তিভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের শরীরে বিরূপ প্রতিক্রিয়া, ১ জনের মৃত্যুহাতিয়ায় নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেফতার-৫

  • আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারতে নয় রামের জন্ম “নেপালে”, মূর্তি তৈরির নির্দেশ ওলির

◷ ১০:৪৮ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, আগস্ট ৯, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ram

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের অযোধ্যায় নয় বরং দক্ষিণ নেপালের অযোধ্যাপুরীতে জন্ম হিন্দু ধর্মের অবতার রামচন্দ্র’র। এবার এমনটাই দাবি করলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কোপি শর্মা ওলি। বিষয়টি প্রমাণ করতে প্রত্নতত্ববিদদের সাথে বৈঠকও করেছেন ওলি। সেইসাথে সেখানে রামের মূর্তিও তৈরি করার পরিকল্পনা জানান ওলি।

নেপালের দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, শনিবার মাদি পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান শিবহরি সুবেদির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে মাদি পৌরসভার মেয়র ঠাকুর প্রসাদ দাকালসহ মাদি থেকে আসা একটি প্রতিনিধির সঙ্গে ২ ঘণ্টা ধরে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি।

সুবেদি দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, প্রধানমন্ত্রী কেপি অলি বলেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশে রামের জন্ম নয় নেপালের অযোধ্যাপুরীতে রামের জন্ম। আমার কাছে যেসব প্রমাণ আছে সেগুলো নির্দেশ করে নেপালের অযোধ্যাপুরীতেই রামের জন্ম হয়েছে।

সুবেদি নামের মাদি পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আমরাও বিশ্বাস করি চিতওয়ানের অযোধ্যাপুরী থেকে পারসার থরি এলাকার বাল্মিকি আশ্রমে রামের জন্ম হয়েছে।

ন্যাশনাল এসেম্বলির সদস্য দিল কুমার রাওয়াল জানান, প্রধানমন্ত্রী অযোধ্যাপুরীর আশেপাশের এলাকা সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রতিনিধি দলকে প্রধানমন্ত্রী আরও প্রমাণ সংগ্রহের জন্য খনন কাজ শুরু করতে বলেছেন।

অযোধ্যাপুরীকে ঐতিহাসিক ও ধর্মীয় স্থান হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার ভূমি প্রদান করবে বলে জানিয়েছেন নেপালি প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া রাম, লক্ষ্মণ ও সীতার মূর্তি স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে বলা হয়েছে, তারা মাদি পৌরসভার নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যাপুরী রাখার চেষ্টা করবেন। এতে করে স্থানটির ধর্মীয় গুরুত্ব বাড়বে।

সম্প্রতি উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে অযোধ্যাকে নিজেদের ভূমি বলে দাবি করেছিল নেপালি সরকার। ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, বিরোধীদের চাপের মুখেই সেই দাবি থেকে সরে এসে এমন মন্তব্য করছেন ওলি।