সংবাদ শিরোনাম
সম্মেলন ডেকে হেফাজতের আমির নির্বাচন করা হবে: বাবুনগরী | সেনা কর্মকর্তা পরিচয়ে ৯ বছরে ৯ বিয়ে! অপেক্ষায় আরও ৪ | ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পুনর্নিয়োগ অনৈতিক ও বিধিবহির্ভূত: টিআইবি | চরফ্যাসনে ফার্মেসীতে র‍্যাবের অভিযান, দোকান বন্ধ করে পালাল ব্যবসায়ীরা | ইউএনও ওয়াহিদা ও তার স্বামীকে ঢাকায় বদলি | সবুজপাতা সফটওয়্যার ও মোবাইল অ্যাপসের উদ্বোধন করলেন রেলমন্ত্রী | ট্রাকচাপায় ছাগল মারা যাওয়ায় চালককে পিটিয়ে হত্যা | হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি শুরু | রংপুরে দুই বোনের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা | ১৯ বছরেই সফল ডিজিটাল মার্কেটার তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী তুহিন |
  • আজ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারতে নয় রামের জন্ম “নেপালে”, মূর্তি তৈরির নির্দেশ ওলির

১০:৪৮ অপরাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ৯, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ram

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের অযোধ্যায় নয় বরং দক্ষিণ নেপালের অযোধ্যাপুরীতে জন্ম হিন্দু ধর্মের অবতার রামচন্দ্র’র। এবার এমনটাই দাবি করলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কোপি শর্মা ওলি। বিষয়টি প্রমাণ করতে প্রত্নতত্ববিদদের সাথে বৈঠকও করেছেন ওলি। সেইসাথে সেখানে রামের মূর্তিও তৈরি করার পরিকল্পনা জানান ওলি।

নেপালের দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, শনিবার মাদি পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান শিবহরি সুবেদির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে মাদি পৌরসভার মেয়র ঠাকুর প্রসাদ দাকালসহ মাদি থেকে আসা একটি প্রতিনিধির সঙ্গে ২ ঘণ্টা ধরে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি।

সুবেদি দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, প্রধানমন্ত্রী কেপি অলি বলেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশে রামের জন্ম নয় নেপালের অযোধ্যাপুরীতে রামের জন্ম। আমার কাছে যেসব প্রমাণ আছে সেগুলো নির্দেশ করে নেপালের অযোধ্যাপুরীতেই রামের জন্ম হয়েছে।

সুবেদি নামের মাদি পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আমরাও বিশ্বাস করি চিতওয়ানের অযোধ্যাপুরী থেকে পারসার থরি এলাকার বাল্মিকি আশ্রমে রামের জন্ম হয়েছে।

ন্যাশনাল এসেম্বলির সদস্য দিল কুমার রাওয়াল জানান, প্রধানমন্ত্রী অযোধ্যাপুরীর আশেপাশের এলাকা সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রতিনিধি দলকে প্রধানমন্ত্রী আরও প্রমাণ সংগ্রহের জন্য খনন কাজ শুরু করতে বলেছেন।

অযোধ্যাপুরীকে ঐতিহাসিক ও ধর্মীয় স্থান হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার ভূমি প্রদান করবে বলে জানিয়েছেন নেপালি প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া রাম, লক্ষ্মণ ও সীতার মূর্তি স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে বলা হয়েছে, তারা মাদি পৌরসভার নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যাপুরী রাখার চেষ্টা করবেন। এতে করে স্থানটির ধর্মীয় গুরুত্ব বাড়বে।

সম্প্রতি উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে অযোধ্যাকে নিজেদের ভূমি বলে দাবি করেছিল নেপালি সরকার। ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, বিরোধীদের চাপের মুখেই সেই দাবি থেকে সরে এসে এমন মন্তব্য করছেন ওলি।