জামিন পেলেন মেজর সিনহার সহযোগী সিফাত

sinha
❏ সোমবার, আগস্ট ১০, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ পুলিশের গুলিতে নিহত অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের সহযোগী স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী চিত্রগ্রাহক সাহেদুল ইসলাম সিফাতের জামিন দিয়েছেন আদালত।

টেকনাফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালত পুলিশের করা দুই মামলায় সোমবার সকালে তাকে জামিন দেন। মামলা দুটি হচ্ছে– মাদক ও অস্ত্র মামলা। একইসাথে সিফাতের বিরুদ্ধে করা দুটি মামলার তদন্তভার পুলিশের কাছ থেকে র‌্যাবে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

এর আগে রবিবার জামিন পান সিনহার আরেক সহযোগী শিপ্রা। গতকাল সিফাতেরও জামিন আবেদন করা হয়। বিচারক তামান্না ফারার আদালতে সিফাতের বিরুদ্ধে করা দুটি মামলার শুনানি হয়। তবে সিফাতের জামিন আদেশ সোমবার নির্ধারণ করেন বিচারক।

উল্লেখ্য ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফে পুলিশ চেকপোস্টে সিনহাকে গুলি করা হয়। ওই সময় তার সঙ্গে ছিলেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম এন্ড মিডিয়া স্ট্যাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী সাহেদুল ইসলাম সিফাত। আর বিশ্ববিদ্যালটির একই বিভাগের ছাত্রী শিপ্রা হিমছড়ির একটি রিসোর্টে ছিলেন। সেখানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে রামু থানায় শিপ্রার বিরুদ্ধে মাদক রাখার অভিযোগে মামলা দেয় পুলিশ। আর সিফাতের বিরুদ্ধে করা হয় হত্যা ও মাদক মামলা।

পরে গত বুধবার তার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস ৯ পুলিশ সদস্যকে আসামি করে আদালতে মামলা করলে আদালত মামলাটি টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নথিভুক্ত করার আদেশ দেন।

পাশাপাশি র‌্যাব ১৫-এর কমান্ডারকেও তদন্ত করার নির্দেশ দেন। পরে বৃহস্পতিবার বিকালে এ মামলায় ওসি প্রদীপসহ সাত আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। বর্তমানে সবাই কক্সবাজার জেলা কারাগারে রয়েছেন।