সংবাদ শিরোনাম

শেরপুর পৌর নির্বাচনে জাল ভোট দেয়ার সময় গ্রেফতার-১ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ ওয়ানডে দল ঘোষণামানবতার হাত বাড়ালেন ঝালকাঠির যুবক “ছবির”টাঙ্গাইলে বিএনপি মেয়র প্রার্থী নির্বাচনী প্রচারনায় ছাত্রদলের একাংশবাউফলে ট্রলির ধাক্কায় শিক্ষক নিহতলালমনিরহাটে তিস্তা নদী পুনরুদ্ধার ও তিন বিঘা এক্সপ্রেস চালুর দাবিতে মানববন্ধনটাঙ্গাইলে আ’লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী মতবিনিময় সভাসুপেয় পানির চাহিদা মেটাতে সুন্দরবনে ৮৮টি পুকুর পুনঃখনন করা হচ্ছে‘বিএনপির প্রার্থীরা সকালে বলে ভোট সুষ্ঠু, সন্ধ্যায় বলে কারচুপি হয়েছে’মুই মরলে লাশ দাফন করার কাও নাই: রমিচা বেওয়া

  • আজ ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বৈরুতে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২২০, নিখোঁজ শতাধিক

◷ ৬:৫১ অপরাহ্ন ৷ সোমবার, আগস্ট ১০, ২০২০ আন্তর্জাতিক
bairut

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ লেবাননের বৈরুত বন্দরে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২০ জনে। এছাড়াও আহত হয়েছে ৫ হাজারের বেশি নাগরিক। বৈরুতের গভর্নর মারওয়ান আব্বৌদ নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন। তবে এখনও শতাধিক মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন। এর মধ্যে বেশ ক’জন বিদেশি শ্রমিক রয়েছেন।

গত মঙ্গলবার ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণের পর লেবাননের শহরটি কেঁপে উঠে। বিস্ফোরণের শব্দে বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। শহরের প্রাণকেন্দ্র থেকে ঘন ধোঁয়ার কুণ্ডলী উঠতে দেখা গেছে। ১৫০ মাইল দূরের এলাকাতেও কম্পন অনুভূত হয়।

মঙ্গলবার বৈরুতের বন্দরের একটি রাসায়নিকের গুদাম থেকে ওই বিস্ফোরণ ঘটে। গুদামটিতে প্রায় ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ ছিল এবং তাই বিস্ফোরিত হয়েছিল। এত বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য মজুতের জন্য সরকারের অবহেলাকে দায়ী করে দেশজুড়ে বিক্ষোভে নামে লেবাননবাসী।

বিক্ষোভের মুখে তিনজন মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন। সর্বশেষ দেশটির আইনমন্ত্রী সোমবার পদত্যাগ করেছেন। তবে এতেও বিক্ষোভকারীরা শান্ত হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকের আগে সোমবার দুপুরেও নতুন করে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

গভর্নর আব্বৌদ জানান, বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২০ জনে। নিখোঁজ রয়েছেন ১১০ জন। নিখোঁজদের বড় একটি বিদেশি শ্রমিক ও লরি চালক। ফলে তাদের চিহ্নিত করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

লেবাননের সেনাবাহিনী বন্দরে উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত করার কথা জানিয়েছে। উদ্ধার অভিযানে কোনও বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিকে আর পাওয়া যাচ্ছে না।

বৈরুতের এই বিস্ফোরণের কারণে ৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছেন দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা। এছাড়া দেশটির সামগ্রিক অর্থনীতি এক হাজার ৫০০ কোটি ডলারের ক্ষতির শিকার হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন তারা।