• আজ ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

◷ ৭:০১ অপরাহ্ন ৷ সোমবার, আগস্ট ১০, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ
pmm

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণ কমাতে মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে, প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে মানুষকে সতর্ক ও সচেতন করার পাশাপাশি মাস্ক পরতে বাধ্য করারও নির্দেশ দেন।

সোমবার (১০ আগস্ট) সকালে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন তিনি।

বেলা সাড়ে ১০টায় সরকারের নীতিনির্ধারণী সর্বোচ্চ ফোরামের এ বৈঠক শুরু হয়। এতে সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে অনলাইনে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। কোভিড পরিস্থিতির জন্য গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।

সভায় চলচ্চিত্র শিল্পীদের আর্থিক সহায়তাসহ তাদের সার্বিক কল্যাণের জন্য ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট আইন-২০২০’ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ব্রিফ করেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রিসভা বৈঠকে বন্যা ও পুনর্বাসন কর্মসূচি নিয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে। গত কয়েকদিন থেকে পানি নেমে যাচ্ছে। আজকে যমুনা নদীর পানি বঙ্গবন্ধু ব্রিজের ওখানে পানি অলরেডি বিপৎসীমার বেশ নিচে চলে গেছে।

পদ্মা নদীর পানির স্তর ও গতি কমেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ভারতের আবহাওয়া বিভাগের প্রেডিকশন আছে যে আপে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সেজন্য প্রধানমন্ত্রী পার্টিকুলারলি এ বিষয়ে সতর্ক করেছেন প্রস্তুত থাকতে হবে যাতে একটা লং টার্ম বন্যা….এই যে পানিটা যাচ্ছে এটাও ১৮/২০ দিন হয়ে গেছে। ১৮/২০ দিন পর পানিটা অনেকটা নিচে নেমে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, যেটা উনি (প্রধানমন্ত্রী) বিশেষ করে সতর্ক করলেন, ভাদ্র মাসের মাঝামাঝি যদি কোনো বন্যা আসে তাহলে সেটা কিন্তু লং টাইমে এটা প্রিভেইল করার সম্ভাবনা থাকে। সুতরাং আমাদের প্রস্তুতিটা ওইখানে রাখতে হবে।