হোয়াইট হাউসের বাইরে গোলাগুলি, ব্রিফিংয়ের মধ্যেই সরানো হলো ট্রাম্পকে


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- হোয়াইট হাউসের বাইরে আচমকা গোলাগুলির শব্দ শোনার পর কোনও ঘোষণা ছাড়াই সংবাদ সম্মেলনের পোডিয়াম থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১০ আগস্ট) নিয়মিত ব্রিফিং শুরুর কয়েক মিনিটের মাথায় সিক্রেট সার্ভিসের এক কর্মী এগিয়ে গিয়ে তাকে সরিয়ে নেন। তার সঙ্গে বেরিয়ে যান ঊর্ধ্বতন আরও কয়েকজন কর্মকর্তা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার স্বাভাবিকভাবেই শুরু হয় হোয়াইট হাউসের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলন। পোডিয়ামে এসে যু্ক্তরাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কয়েক মিনিটের মাথায় তার দিকে এগিয়ে আসেন সিক্রেট সার্ভিসের এক কর্মী। কিছু একটা বলতেই ট্রাম্প তার সঙ্গে হেঁটে পিছনের দরোজা দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভেন ম্নুচিন ও ম্যানেজমেন্ট ও বাজেট অফিসের পরিচালক রাসেল ভটও তার সঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করেন। অপর এক কর্মী দরজা বন্ধ করে দেন।

ঘটনার আকস্মিকতায় উপস্থিত সংবাদকর্মীরা কারণ জানতে মরিয়া হয়ে ওঠেন। হোয়াইট হাউসের উত্তর লনে অবস্থান নেন সিক্রেট সার্ভিসের কর্মীরা। খানিক বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির পর প্রায় দশ মিনিটের মাথায় পোডিয়ামে ফেরেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ফক্স নিউজ জানায়, দু’টি গুলির শব্দ শোনা গিয়েছিল। হোয়াইট হাউসের কাছে ১৭ নম্বর স্ট্রিট এবং পেনসিলভেনিয়া অ্যাভিনিউতে গুলি চলেছে।

পরে ট্রাম্প সম্মেলন কক্ষে ফিরে এসে জানান, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এক ব্যক্তিকে গুলি করেছে এবং আহত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ট্রাম্প জানান, তিনি মনে করেন, ওই ব্যক্তির কাছে অস্ত্র ছিল। তবে পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

গুলির ঘটনার সময় সম্মেলন কক্ষ থেকে তাকে সরিয়ে ওভাল অফিসে নেওয়া হয় বলে জানান ট্রাম্প। এসময় সিক্রেট সার্ভিসের অনেক প্রশংসাও করেন তিনি।

এদিকে, এ ঘটনায় ট্রাম্প আতঙ্কিত হয়েছেন কিনা, সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাকে দেখে কি আতঙ্কিত মনে হচ্ছে?’

তিনি বলেন, ‘এটি দুর্ভাগ্যজনক যে পৃথিবীটা এরকম, কিন্তু পৃথিবীটা সব সময়ই এরকম বিপজ্জনক জায়গা ছিল। এটি নতুন কিছু নয়। যদি আপনি কয়েক শতাব্দী পেছনে তাকান, দেখবেন, পৃথিবীটা সব সময় একটি বিপজ্জনক, খুবই বিপজ্জনক স্থান ছিল এবং আমার মনে হয় আরও অনেক দিন তাই থাকবে। ’

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন